| |

চরঈশ্বর দিয়া ইউপি চেয়ারম্যানের ওপর হামলাকারীদের অবিলম্বে গ্রেফতার ও শাস্তির দাবী চেয়ারম্যান সমিতির

স্টাফ রিপোর্টার ঃ ময়মনসিংহ সদর উপজেলার চরঈশ্বরদিয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মোরশেদুল আলম জাহাঙ্গীরের ওপর হামলাকারীদের অবিলম্বে সনাক্ত করে গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবীতে গতকাল শনিবার (১১ মার্চ) দুপুরে ময়মনসিংহ প্রেসক্লাব মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলন করেছে সদর উপজেলা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান সমিতি। সমিতির সভাপতি ও আকুয়া ইউপি চেয়ারম্যান আফাজ উদ্দিন সরকার সংবাদ সম্মেলনে এক লিখিত বক্তব্য পাঠে বলেন, গত ৯ মার্চ (বৃহস্পতিবার) রাত প্রায় ৯ টায় ময়মনসিংহ টাউনহল চত্বরে জালাল মেলায় উপস্থিত চর-ঈশ্বরদিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোরশেদুল আলম জাহাঙ্গীরের ওপর একদল দৃষ্কৃতকারী হামলা চালায়। পরিকল্পিত ভাবে অত্যন্ত কৌশলে হত্যার উদ্দেশ্যে দুষ্কৃতকারীরা চেয়ারম্যানের মাথায় প্রচন্ড আঘাত হানে। করুনাময়ের রহমতে তিনি প্রাণে বেচে গেলেও গুরুতর রক্তাক্ত জখম নিয়ে তিনি চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। এ ব্যাপারে ময়মনসিংহ কোতোয়ালী মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে। হত্যার লক্ষ্যে এই হামলার ঘটনার সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ তদন্তের মাধ্যমে হামলাকারীদের সনাক্ত এবং দ্রুত গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা গ্রহনে পুলিশ প্রশাসনের প্রতি দাবী জানানো হয় সংবাদ সম্মেলনে। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত সদর উপজেলা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান সমিতির অন্যান্য কর্মকর্তা ও সদস্যগন এই ধরনের হামলায় শংকা প্রকাশ করেন এবং তাদের নিজেদের নিরাপত্তার দাবী জানায়। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ১ নং- অষ্টধার ইউপি চেয়ারম্যান তারেক হাসান মুক্তা, ২নং- কুষ্টিয়া ইউপি চেয়ারম্যান হাসানুল ইসলাম, ৩নং বোরোরচর ইউপি চেয়ারম্যান শওকত আলী বুডু, ৪নং পরানগঞ্জ ইউপি চেয়ারম্েযান মোঃ সোলেমান ফকির ৫ নং সিরতা ইউপি চেয়ারম্যান সাইফুদ্দিন আহম্মেদ বকুল, ৭ নং নিলক্ষীয়া ইউপি চেয়ারম্যান নূর মোহাম্মদ মীর, ১০ নং দাপুনিয়া ইউপি চেয়ারম্যান হুমায়ুন হাসান উজ্জ্বল, ১১ নং ঘাগড়া ইউপি চেয়ারম্যান শাজাহান সরকার সাজু, ১২ নং ভাবখালী ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ রমজান আলী প্রমুখ।