| |

গৌরীপুরে ইউপি চেয়ারম্যানের বাড়িতে হামলা-ভাংচুর, অগ্নিসংযোগ ॥ আহত-৭

গৌরীপুর  প্রতিনিধি ঃ গৌরীপুর উপজেলার রামগোপালপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান বদর উদ্দিন আহম্মেদের বাড়িতে হামলাা, ভাংচুর, অগ্নিসংযোগ-লুটপাটের অভিযোগে মঙ্গলবার (১১ এপ্রিল/১৭) রাতে গৌরীপুর থানায় মামলা হয়েছে। হামলায় দু’পক্ষের আহত ৭জনকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেছে। অপরপক্ষের ফজলুল হক জানান, হামলা-ভাংচুরের ঘটনা সাজানো। ওদের হামলায় তাঁর বড়ভাই আবুল মুনসুরের স্ত্রী মনোয়ারা বেগম (৫৫), তার পুত্র মনোয়ার হোসেন (২৫), আব্দুল জব্বার (৫৫) আহত হয়েছে।
সাবেক চেয়ারম্যান প্রয়াত বদর উদ্দিন আহম্মেদের পুত্র মোঃ বোরহান উদ্দিন আহম্মেদ বুধবার (১২এপ্রিল/১৭) জানান, প্রতিবেশী ফজলুল হক ও আবুল মুনসুর গংদের সাথে দীর্ঘদিন যাবত জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছিলো। রোববার (৯এপ্রিল) বিকালে অতর্কিতভাবে বাড়িঘরে হামলা-ভাংচুর, অগ্নিসংযোগ ও লুটপাট চালায়। নগদ টাকাসহ প্রায় ৫লক্ষ টাকার মালামাল ক্ষতিগ্রস্থ করে। হামলায় আহতরা হলেন বদর উদ্দিন আহম্মেদের স্ত্রী মোছাঃ হোছেনবানু (৬০), পুত্র ফরিদ উদ্দিন আহম্মেদ (৪০), মোঃ আশরাফ উদ্দিন আহম্মেদ (২৯) ও বেরাটি গ্রামের আবুল হাসেমের পুত্র মোঃ মোস্তাকিন (২০)। আহতদের ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেছে। মঙ্গলবার রাতে সিরাজুল হক (৩৬), মোঃ এনামালু হক (৩২), মোঃ মনোয়ার হোসেন মামুন (২৩), মোঃ আশরাফ হোসেন (৩০), মোঃ সুজন মুন্সী (২৮), মোঃ মোফাজ্জল হোসেন (৩৪), সাদ্দাম হোসেন (২৬), আব্দুল ওয়াহাব (৩২), মোঃ মঞ্জু মিয়া (৩৩), মোঃ সবুজ মিয়া (২৭), আব্দুল হেলিম (৪৫), ফজলুল হক (৫২), আবুল মুনসুর (৫৭) কে আসামী করে সাবেক চেয়ারম্যান প্রয়াত বদর উদ্দিন আহম্মেদের পুত্র মোঃ বোরহান উদ্দিন আহম্মেদ বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন। ফজলুল হক জানান, দীর্ঘদিন যাবত জমিসংক্রান্ত বিরোধ চলছিলো। ঘটনার দিন উভয়পক্ষকে আপোষ করার জন্য সালিশে বসলে ওরা আমাদের উপর হামলা চালায়। গৌরীপুরর থানার অফিসার ইনচার্জ দেলোয়ার আহম্মদ জানান, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান প্রয়াত বদর উদ্দিন আহম্মেদের বাড়িতে হামলা-ভাংচুরের ঘটনায় মামলা হয়েছে।