| |

গৌরীপুরে গভীররাতে রেলওয়ের মাল পাচারকালে জনতার হাতে আটক

গৌরীপুর  প্রতিনিধি ঃ ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার শ্যামগঞ্জ রেলওয়ে জংশন স্টেশন থেকে বুধবার (১০মে) গভীররাতে ট্রাকযোগে রেলওয়ের স্লিপার, রেল, লেভেলক্রসিংয়ের মালামাল পাচারকালে বিক্ষুব্ধ জনতা এসব মালামাল আটক করে। রেলওয়ের দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তাদের বিচারের দাবিতে শ্যামগঞ্জ জংশনে বৃহস্পতিবার ভোরে বিক্ষোভ মিছিল করে। আটকৃকত ট্রাকটি মালামালসহ গৌরীপুর থানার এসআই শাহ জালাল গৌরীপুরে নিয়ে আসেন। গৌরীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ দেলোয়ার আহম্মদ জানান, মালামালের শতভাগ বৈধতা পাওয়া গেছে, তাই ট্রাকটি ছেড়ে দেয়া হয়েছে।
প্রত্যক্ষদর্শী সূত্র জানায়, শ্যামগঞ্জ রেলওয়ে জংশনে (ঢাকা-মেট্রো ড-১৪-৬৩৭৭) ট্রাকটি সকাল ১১টায় আসে। দিনভর দাঁড়িয়ে থাকার পর সন্ধ্যার পরে ট্রাকে রেলওয়ের লেভেলক্রসিং, রেল ও রেললাইনের স্লিপার ভরে তড়িগড়ি করে ট্রাকটি চলে যেতে চাইলে বিক্ষুব্দ জনতা প্রতিবাদের মুখে রাত ২টায় ট্রাকটি রেখে ঠিকাদার সটকে পড়েন। শ্যামগঞ্জের উধ্বর্তন উপ-সহকারী মোঃ শাহাব উদ্দিন জানান, উধ্বর্তন কর্তৃপক্ষের মৌখিক নির্দেশে এমআইএসডিসিসিএল নামের একটি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান এ মালামাল ২০১৬সালের ৩ সেপ্টেম্বর রেখেছিলো। তবে এ কর্মকর্তা এসব মালামাল গুদামে সংরক্ষণের কোন কাগজপত্র দেখাতে পারেননি। প্রায় কোটি টাকা মূল্যের এ অঞ্চলের রেলপথে পুরাতন স্লিপার ব্যবহার করে নুতন স্লিপার বিক্রি করে দিচ্ছে বলে অভিযোগ করেন আওয়ামী লীগ নেতা বেলায়েত হোসেন মনোজ। আব্দুল খালেক জানান, গত ৫মাসে এ জংশন থেকে কমপক্ষে ২০ট্রাক মালামাল লুট হয়েছে। ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের মিজানুর রহমান বলেন, এসব মাল চট্টগ্রাম ও খুলনা থেকে কেনা। তবে গুদামে দায়িত্বরত কর্মকর্তা শাহাব উদ্দিন এসব মাল ক্রয়ের নির্ধারিত রশিদ ও মালামালের কাগজপত্র দেখা ব্যর্থ হন।
দফায় দফায় রেলওয়ের মালামাল বিক্রির অভিযোগে দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তাদের অপসারণের দাবিতে শ্যামগঞ্জ জংশনে বৃহস্পতিবার (১১ মে) সকালে বিক্ষোভ মিছিল করে।