| |

তাড়াইলে ভজোলবরিোধী অভযিানে চার প্রতষ্ঠিানকে ১৭ হাজার টাকা জরমিানা

নজরুল ইসলাম খায়রুল :ি কশিোরগঞ্জরে তাড়াইল সদর বাজারে ভজোলবরিোধী অভযিানে চার প্রতষ্ঠিানকে ১৭ হাজার টাকা জরমিানা করছেে জাতীয় ভোক্তা অধকিার সংরক্ষণ অধদিপ্তর।
জরমিানা আদায়কৃত প্রতষ্ঠিানগুলো হলো-সুমন এন্ড পপি মষ্টিান্ন ভান্ডার, রতন ময়িার হোটলে, মা মষ্টিান্ন ভান্ডার ও সরকার স্টোর।
সোমবার দুপুরে জাতীয় ভোক্তা অধকিার সংরক্ষণ অধদিপ্তররে কশিোরগঞ্জরে সহকারী পরচিালক মো. ইব্রাহীম হোসনে এ জরমিানা আদায় করনে।
এসময় জলো স্যানটোরী পরর্দিশক শংকর চন্দ্র পাল ও তাড়াইল স্যানটোরী পরর্দিশক আ. রউফ তালুকদার উপস্থতি ছলিনে।
সহকারী পরচিালক মো. ইব্রাহীম হোসনে জানান, তাড়াইল সদর বাজারে বভিন্নি খাবার হোটলে ও মষ্টিরি দোকানে রঙ মশ্রিতি শশিু খাদ্য, ময়োদোর্ত্তীন ও ওজনে কম দয়োর অভযিোগ পাওয়ায় অভযিান পরচিালনা করা হয়। এসময় সুমন এন্ড পপি মষ্টিান্ন ভান্ডারকে অপরচ্ছিন্ন খাবার বক্রিি করা দায়ে এর মালকি আবু বাক্কারকে ৫ হাজার টাকা জরমিানা, রতন ময়িার হোটলেকে রঙ মশ্রিতি করায় এর মালকি রতন ময়িাকে ৫ হাজার টাকা, মা মষ্টিান্ন ভান্ডার ওজনে কম দয়োয় ২ হাজার টাকা ও  সরকার স্টোর ময়োদোর্ত্তীন ও রঙ মশ্রিতি শশিু খাদ্য বক্রিি করায় এর মালকি উত্তম সরকারকে ৫ হাজার টাকা জরমিানা করা হয়। এর আগে জাতীয় ভোক্তা অধকিার সংরক্ষণ অধদিপ্তররে পক্ষ থকেে তাড়াইল উপজলোর পুরুরা বাজারে উপস্থতি ব্যবসায়ী ও বাজার কমটিরি লোকজনরে সাথে জনসচতেনতামুলক মতবনিমিয় সভা করা হয়।