| |

ফুলবাড়িয়ায় শিয়ালে কামড়ানো বৃদ্ধা মহিলার অভিভাবকের শেষ নেই

মো: আব্দুস ছাত্তার : ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া উপজেলার পুটিজানা ইউনিয়নের তেজপাটুলী গ্রামের মৃত মোসলেম উদ্দিন এর স্ত্রী মোছা মরিয়ম বেগম (৮০) এর চিকিৎসার দায়ভার নিয়েছেন স্থানীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মো: মোসলেম উদ্দিন এ্যাডভোকেট, উপজেলা নির্বাহী অফিসার লীরা তরফদার, সমাজ সেবা অফিস, ইউপি চেয়ারম্যান ময়েজ উদ্দিন তরফদার, আখালিয়া হেলথ সেন্টার লি: সহ দানভীর, প্রবাসী ও বিভিন্ন পর্যায়ের ব্যক্তিবর্গ। চিকিৎসার দায়িত্ব নেয়ার জন্য বিরোধী দলীয় নেতা রওশন এরশাদ তাঁর দলীয় মুক্তাগাছার এমপি আলহাজ্ব সালাহ উদ্দিন মুক্তি কে ফুলবাড়ীয়ায় পাঠিয়েছিলেন।
অসহায় মহিলাকে দেখতে সকাল সাড়ে ৯টায় পুটিজানা তেজপাটুলী গ্রামে ছুটে যান ইউএনও লীরা তরফদার। স্থানীয় ও পরিবারের সাথে কথা বলে চিকিৎসার জন্য এম্বুলেন্স যোগে ফুলবাড়ীয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসেন। এতক্ষনে সমাজ সেবা ময়মনসিংহ বিভাগের উপ-পরিচালক মো: আমিনুল ইসলাম। খবর পেয়ে হাসপাতালে ছুটে আসেন জাতীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মো: মোসলেম উদ্দিন এ্যাডভোকেট। প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। উপজেলা হাসপাতালে সমাজ সেবা ডিডি বয়স্ক ভাতার কার্ড তুলে দেন। সমাজ সেবার ভূমিকা নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ময়েজ উদ্দিন তরফদার। তিনি সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, গতকাল রবিবার রাত ২টা পর্যন্ত ইউনিয়ন পরিষদের লোকজনদের আশ্বস্ত করেছিলেন সকাল ৮টার মধ্যে বয়োবৃদ্ধ মহিলাকে হাসপাতালে পাঠানোর ব্যবস্থা করবেন কিন্তু তাদের কথার সাথে কাজের কোন মিল পাওয়া যায়নি।
উল্লেখ্য, বৃদ্ধা মায়ের ৩ পুত্র সন্তান আছে। তারা বিয়ে করেছেন সংসার আছে স্ত্রী আছে নাতিও আছে। বয়সের ভাড়ে নজু মা এখন তাদের কাছে বোঝা। বিষয়টা একদিনের না। চলছে দীর্ঘদিন ধরে। ৩ পুত্র সন্তানের ঘরে ৩ মাস করে পালাক্রমে ভরণপোষনের জন্য স্থানান্তর বৃদ্ধা মা। বড় ছেলের বাড়ীতে ৩ মাস ভরণপোষনের পর মেজো ছেলের বাড়ীতে বৃদ্ধা মায়ের স্থানান্তর হওয়ার কথা ছিল। অপদার্থ মেজো ছেলে মাকে ভরণপোষন না করে পাঠিয়েছিল ছোট ভ্ইায়ের কাছে। ছোট ভাই কুলাঙ্গার মাকে নিজের টিনসেটের ঘরে না রেখে গোয়াল ঘরে রেখেছিল। শিয়ালের দল কামড়িয়ে ক্ষতবিক্ষত করেছে বৃদ্ধা মাকে। বিষয়টা জানাজানি হয়ে ছিল অবশ্যই। তারপরও বিনা চিকিৎসায় দিনাতিপাত করছিল বৃদ্ধা মা।
উপস্থিত সকলের সামনে বৃদ্ধা মহিলার আজীবন ভরন-পোষণের দায়-দায়িত্ব নেন জাতীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মো: মোসলেম উদ্দিন এ্যাডভোকেট।
আখালিয়া হেলথ সেন্টার লি: এর চেয়ারম্যান এড. ইমদাদুল হক সেলিম জানান, এর আগে কৈয়ারচালায় রাস্তার পাশ্বে পড়ে থাকা এক বৃদ্ধা মহিলার ভরন-পোষণের দায়িত্ব পালন করছে আখালিয়া হেলথ সেন্টার লি:।