| |

মির্জাপুরে ব্যস্ত সময় পার করছেন প্রতিমা শিল্পীরা

টাঙ্গাইল প্রতিনিধিঃ আর কয়েকদিন পরই শুরু হতে যাচ্ছে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় অনুষ্ঠান শারদীয় দুর্গোৎসব। এবার দেবী দূর্গা মাকে স্বাগত জানাতে টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে পূজা মন্ডপগুলোতে প্রতিমা তৈরিতে বেশ ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন প্রতিমা শিল্পীরা এ বছর মির্জাপুর উপজেলা সদরের দানবীর (আরপি)/ রনদা প্রসাদ সাহার নিজ বাড়ি, পৌরসভা ও ১৪টি ইউনিয়নসহ সর্বমোট ২২১টি পূজামন্ডপে এ দূর্গাপূজা উদযাপন করার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে বলে অবগত করেছেন, উপজেলা পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি অতুল প্রসাদ পোদ্দার। এতে পৌরসভার মধ্যে ৪৩টি ও ১৪টি ইউনিয়নে ১৭৮টি পূজা মন্ডপ রয়েছে বলেও জানা যায়।
এদিকে এশিয়াখ্যাত মির্জাপুর কুমুদিনী হাসপাতালের প্রতিষ্ঠাতা দানবীর (আরপি)/ রনদা প্রসাদ সাহার নিজ বাড়িতে বেশ ঘরোয়া করে পূজার আয়োজন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন কুমুদিনী হাসপাতাল প্রশাসন বিভাগের কর্মকর্তা সপন কুমার মন্ডল । পূজা মন্ডপ পরিদর্শনে মন্ত্রী পরিষদের সদস্যবৃন্দ, সাংস্কৃতিক ও সামাজিক অঙ্গনের নেতৃবৃন্দরা আসবেন বলে জানা গেছে।
পূজা সুষ্ঠুভাবে উদযাপনের লক্ষে উপজেলা পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি অতুল প্রসাদ পোদ্দার বলেন, প্রশাসন, স্থানীয় রাজনৈতিক ও গণ্যমাণ্য ব্যক্তিদের আন্তরিক সহযোগিতায় এ বছর ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে মির্জাপুরে দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হবে বলে কামনা করছি।’

এ ব্যাপারে মির্জাপুর থানার অফিসার্স ইনচার্জ এ.কে.এম. মিজানুল হক বলেন, পূজা উদযাপন কমিটির সাথে কথা বলে প্রয়োজনীয় সংখ্যক স্বেচ্ছাসেবক নিয়োগ করা হবে। এছাড়া প্রত্যেকটি পূজা মন্ডপে নিরাপত্তা রক্ষায় মাঠে থাকবে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।