| |

নিকলীর হাওরে ঐতিহ্যবাহী নৌকাবাইচ অনুষ্ঠিত

নজরুল ইসলাম খায়রুল : কিশোরগঞ্জের নিকলীর হাওরে ভাটি বাংলার ঐতিহ্যবাহী বৃহত্তম নৌকাবাইচ অনুষ্ঠিত হয়েছে।
গতকাল বুধবার বিকেলে নিকলী উপজেলার অন্যতম সোয়াইজানী নদীতে এ নৌকাবাইচের আয়োজন করে নিকলী নতুন বাজার বনিক সমিতি। নিকলী সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও নৌকাবাইচ উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক কারার শাহরিয়ার আহমেদ তুলিপের সভাপতিত্বে আয়োজিত নৌকাবাইচ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন নিকলী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কারার সাইফুল ইসলাম, নিকলী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও-দায়িত্বপ্রাপ্ত) সোহানা নাসরিন, উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মো. ইসহাক ভূঁইয়া, উপজেলা মহিলা ভাইসচেয়ারম্যান রৌশন আরা, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. নাসির উদ্দিন ভূঁইয়া প্রমূখ। পরে সন্ধ্যায় নৌকাবাইচ প্রতিযোগিতায় প্রথম পুরস্কার বিজয়ী নিকলী সদরের গোবিন্দপুর আলী হোসেনের নৌকাদলকে একটি ফ্রিজ এবং দ্বিতীয় পুরস্কার প্রাপ্ত ইউপি চেয়ারম্যান কারার শাহরিয়ার আহমেদ তুলিপের নৌকার দল ও তৃতীয় পুরস্কার প্রাপ্ত গুরুই তোতা মিয়ার নৌকাদলকে একটি করে টেলিভিশন প্রদান করা হয়। নৌকাবাইচে মোট ১০টি দৌড়ের নৌকাদল অংশ নেন। নৌকাবাইচকে কেন্দ্র করে নিকলী এলাকাসহ আশেপাশের এলাকায় হিন্দু-মুসলিম প্রতিটি বাড়িতেই ছিলো উৎসবের আমেজ। পাশাপাশি স্থানীয়রা তাদের আত্মীয়-স্বজনসহ পরিচিতজনদের দাওয়াত করে এনেছেন এই নৌকাবাইচ দেখাতে। দৌড়ের নৌকাগুলোর মাঝিমাল্লারা সোয়াইজনী নদী ও আশপাশের হাওরে “হেইয়ো হেইয়ো” রবে এবং সারিগান আর ঢোল-কর্তালের বাদ্যে মুখরিত করে তোলে গোটা হাওরাঞ্চল। প্রায় ৫ কি.মি. দীর্ঘ হাওর সৈকত জুড়ে লাখ লাখ দর্শনার্থীরা নৌকাবাইচের আনন্দ উপভোগ করেন।
আগত দর্শক ও প্রতিযোগীদের সার্বিক নিরাপত্তার দায়িত্ব পালন করে জেলা পুলিশ বাহিনীর একটি দলসহ স্থানীয় আনসার ও স্বেচ্ছাসেবী কর্মীরা। এছাড়াও স্বাস্থ্য বিভাগের একটি মেডিকেল টীম এলাকায় দায়িত্ব পালন করেন।