| |

নান্দাইলে বিরল রোগে আক্রান্ত অসহায় জসিম উদ্দিন বাচঁতে চায়

নান্দাইল  প্রতিনিধি ঃ পরিবারের জন্য দু-মুঠো ভাত জোগাতে যার টানাপোড়ান, তাঁর উপর এক বিরল দুরারোগ্য রোগের আদান। যাকে বলা চলে ‘মরার উপর খরার ঘা’। ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার মুশুলী ইউনিয়নের আগ-মুশুলী গ্রামের সহায় সম্বলহীন নিত্য খেটে খাওয়া জসিম উদ্দিন (৩২) বিরল রোগে আক্রান্ত হয়ে দুর্বিষহ জীবন-যাপন করছেন। অর্থাভাবে সে সু-চিকিৎসা করাতে পারছেনা। পরিবার-পরিজন নিয়েও নিদারুণ কষ্টে জীবন কাটাচ্ছেন। পরিবারে সে, স্ত্রী ও তিন সন্তান সহ ৫ জনের খাবার এখন কে যোগাবে? তাঁর এ বিরল রোগের দুঃর্বিসহ কষ্টের কারনে কোন অবস্থাতেই সে লোকালয়ে যেতে পারছেন না। তার এ অবস্থা থেকে বাচাঁর আকুতি জানিয়ে সকলের সহযোগিতা কামনা করেছেন। জসিমের নিজের কোন জমি-জিরাত নেই যে তা বিক্রী করে উন্নত চিকিৎসা করাবে। ছোট ছোট সন্তানদের নিয়ে পড়েছে বিপাকে। ভূমিহীন দিনমজুর জসিম স্থানীয় তারেরঘাট বাজারে মাথায় করে পাথর টেনে এবং তার স্ত্রী ললিতা বেগম অন্যের বাড়িতে কাজ করে যা পায় তা দিয়ে কোন রকমে খেয়ে না খেয়ে চলে তাদের সংসার। জসিমের মা আসিয়া বেগম জানান, গত দুই বছর আগে তার ছেলের মুখে একটি ছোট ঘা হয়, আস্তে আস্তে সেই ঘা বেড়ে গিয়ে এখন সমস্ত মুখ জুড়ে বিস্তৃত হয়ে গেছে। এখন জসিম মুখে কিছু খেতে পারে না, কথা বলতেও কষ্ট হয়। গ্রাম্য অনেক চিকিৎসা করালেও কোন লাভ হয়নি। টাকার অভাবে অসহায় জসিমের চিকিৎসাও বন্ধ হয়ে গেছে। বিরল রোগে আক্রান্ত জসিম উদ্দিন বলেন, ’আমি বাচঁতে চাই, ডাক্তার বলেছে ভালো চিকিৎসা হলে আমি সুস্থ্য হবো। আমাকে সুস্থ্য করার জন্য সকলের সহযোগীতা ছাড়া আর উপায় নাই। আপনারা আমার সন্তান পরিজনদের দিকে তাকিয়ে আমার সু-চিকিৎসার ব্যবস্থা করে দেন। জসিম উদ্দিনের বাবা-মা বলেন, মা-বাবার সামনে ছেলের কষ্ট এবং মৃত্যুর দৃশ্য দেখার আগে আল্লাহ যেন আমাদের মৃত্যু দেয়। আমরা সহ্য করতে পারছিনা। আমরা অক্ষম, কি করে চিকিৎসা করব বাবা খাইতে পাইনা। কাদঁতে কাদঁতে সকলের সহযোগীতা কামনা করেন। নান্দাইল উপজেলার মুশুলী ইউনিয়ন পরিষদের ২নং ওয়ার্ড সদস্য ওমর ফারুক বলেন, জসিম উদ্দিনের উন্নত চিকিৎসার জন্য (জসিম উদ্দিনের হিসাব নং ৩৩২৩৩০১০০৫৫৭০ সোনালী ব্যাংক, তারঘাট বাজার শাখা) সমাজের বিত্তবানদের এগিয়ে আসার অনুরোধ জানাচ্ছি। জসিমের স্ত্রী ললিতা বেগম জানান, রাজধানীর একটি হাসপাতালের ডাক্তার আহাম্মদ মিজানুর রহমান জানিয়েছেন, দীর্ঘ মেয়াদী উন্নত চিকিৎসা করা হলে জসিমকে সুস্থ্য করা সম্ভব। জসিমের বাবা-মাসহ এলাকাবাসী তার উন্নত চিকিৎসার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিমের কাছে আকুল আবেদন জানানোর পাশাপাশি দেশ-বিদেশী স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা ও বিত্তবানদের আর্থিক সহযোগিতা কামনা করেছেন। নান্দাইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্মকর্তা ডাক্তার অনুপম ভট্রাচার্য জানান, বিষয়টি আমার জানা নেই। তবে খোঁজ নিয়ে ব্যবস্থা নিবেন বলেও জানান তিনি।