| |

ময়মনসিংহে বঙ্গমাতা টুর্নামেন্টে কলসিন্দুরের খেলায় নান্দাইলের এমপি’র প্রভাব বিস্তারের অভিযোগ।

ধোবাউড়া প্রতিনিধি ঃ  বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেসা মুজিব গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের জেলা পর্যায়ের সেমিফাইনালে কলসিন্দুরের খেলায় নান্দাইলের এমপি আনোয়ারুল আবেদীন তুহিনের বিরোদ্ধে প্রভাব বিস্তারের অভিযোগ উঠছে।রবিবার দুপুরে ময়মনসিংহ সার্কিট হাউজ মাঠে ধোবাউড়ার কলসিন্দুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ও নান্দাইলের পাচরুখি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মধ্যকার সেমিফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হয়। খেলা শুরুর প্রায় দেড় ঘন্টা আগে থেকে এমটি আনোয়ারুল আবেদীন তুহিন মাঠে উপস্থিত ছিলেন। নিয়ম অনুযায়ী খেলায় অংশ গ্রহণকারীদের বয়স সর্বোচ্চ ১২ ও উচ্চতা ৪ ফুট ৯ ইঞ্চি হতে হবে। খেলা শুরুর পূর্বে প্রথমে কলসিন্দুরের মেয়েদের মাপ দেওয়া হয়। এরপর নান্দাইলের মেয়েদের মাপ দিলে ৪ জনের উচ্চতা বেশী হওয়ায় তাদের বাদ দেওয়া হয়। এসময় নান্দাইলের মেয়েদের প্রশিক্ষক ও শিক্ষকদের সুপারিশে ৯ নম্বর জার্সি পড়া একটি মেয়েকে ৩ বার মাপা হয়। কিন্তু ৩ বারই সে বাদ পড়ে। মাঠে উপস্থিত দর্শক ও ধোবাউড়া থেকে আসা কলসিন্দুরের সর্মথকদের অভিযোগ এসময় নান্দাইলের সাংসদ আনোয়ারুল আবেদীন তুহিন উঠে প্রভাব বিস্তার করেন। জোরপূর্বক মেয়েদের মাঠে নামিয়ে দেন।ধোবাউড়া থেকে আসা লোকজনও প্রতিবাদ করেন। কিন্তু তাতে কোন লাভ হয়নি। অবশেষে কলসিন্দুরের মেয়েরা খেলা বয়কট করে। কিন্তু তখন সাংসদ তুহিনের সাথে আসা লোকজন না খেলে মাঠ ছাড়তে পারবেনা বলেও হুমকি দেওয়ার অভিযোগ করেন।পরে বাধ্য হয়ে মেয়েরা মাঠে নামে। খেলায় নান্দাইল ৩-০ গোলে কলসিন্দুরকে পরাজিত করে।কিন্তু মাঠে দর্শকরা অভিযোগ করেন যে কলসিন্দুর সারা দেশের প্রত্যেকটি দলকে গুনে গুনে গোল দেয় সেই কলসিন্দুরের এমন পরাজয় হতে পারেনা। মাঠে থাকা কলসিন্দুরের ইউপি সদস্য আজিজুল ইসলাম বলেন এমপি সাহেব আমারেকে জোর করে হারিয়ে দিয়েছে। মাঠে উপস্থিত থোকা ধোবাউড়া উপজেলা আওয়ামীলীগের শ্রমবিষয়ক সম্পাদক আঃ লতিফ বলেন কলসিন্দুরের মেয়েরা দেশ বিদেশে দেশের সুনাম বয়ে এনেছে আর আমাদের সাথে এমপি সাহেবের এমন আচরন মেনে নেওয়া যায়না। তবে কলসিন্দুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মেয়েদের কোচ মফিজ উদ্দিন এ বিষয়ে কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি। এ ব্যাপারে নান্দাইলের সাংসদ আনোয়ারুল আবেদীন তুহিনের মুটোফোনে বারবার ফোন করলেও রিসিভ করেননি।তবে ময়মনসিংহ জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মোফাজ্জল হোসেন বলেন মাঠে এমপি সাহেব খেলা দেখতে এসেছে আমরা নিয়মমাফিক খেলা পরিচালনা করেছি।