| |

ফুলবাড়িয়ায় বিশাল জনসভায় তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু – রূপরেখা কিং ভুতের সরকার আর হবে না

মো: আব্দুস ছাত্তার : তথ্যমন্ত্রী ও জাসদ সভাপতি হাসানুল হক ইনু এমপি বলেছেন, জঙ্গিদের সঙ্গী বেগম খালেদা-জামায়াত চক্রকে আগামীতেও ক্ষমতার বাইরে রাখতে হবে। তারা আবার ক্ষমতায় এলে দেশে জঙ্গি উৎপাদন শুরু করবে, রাজাকারদের পুনর্বাসন করে দেশে লুটপাটের রাজত্ব কায়েম করবে। বিএনপি-জামায়াতের সহায়ক সরকারের নামে রূপরেখা কিং ভুতের সরকার আর হবে না।
তিনি বলেন শেখ হানিনার নেতৃত্বে দেশ দ্রুত উন্নতির দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ে তুলতে শেখ হাসিনাকে আবারো সমর্থন দিয়ে উন্নয়নের ধারাকে অব্যাহত রাখতে মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের সকল শক্তিকে এক্যবদ্ধভাবে কাজ করার আহবান জানান তিনি। শেখ হাসিনা প্রতিহিংসর রাজনীতি করেনা বরং খালেদা জিয়াই প্রতিহিংসার রাজনীতি করে তার প্রমাণ আগুন দিয়ে মানুষ মারা, জঙ্গিদের সহায়তা করা, ম্যাডাম জিয়া স্বাধীনতার মূল চারনীতি মানেনা, বঙ্গবন্ধুকে জাতির পিতা মানেনা। তারা বার বার শেখ হাসিনাকে হত্যার চেষ্টা চালায়। এসব কর্মকান্ডের জন্য জনগণ তাদেরকে আগামী নির্বাচনেও প্রত্যাখান করবে।
মন্ত্রী বলেন, মিউজিক্যাল চেয়ার খেলা বন্ধ করতে হবে, দুনিয়া উল্টে গেলেও যথা সময়ে নির্বাচন তাতে কোন সন্দেহ নেই। ঐক্যের ভেতরে থেকে দলবাজি, টেন্ডারবাজিসহ সকল অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ গড়ে তোলা হবে।
তেতুল হুজুরের প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, দেশের স্বার্থে খালেদা জিয়ার সাথে কোন আপোষ হতে পারে না, জাসদ রাজনীতির জন্যে বিরোধীতা করে, বিরোধীতার জন্য বিরোধীতা নয়, ঐক্য আছি, থাকবো।
গতকাল বুধবার (২২ নভেম্বর) উপজেলা জাসদ আয়োজিত ফুলবাড়ীয়া ডিগ্রী কলেজ মাঠে অনুষ্ঠিত এক বিশাল জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু এমপি এসব কথা বলেন।
মন্ত্রী ও জাসদ সভাপতি বলেন সৈয়দ শফিকুল ইসলাম মিন্টু একজন পরীক্ষিত যোগ্য নেতা, সে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হলে সন্ত্রাস ও দুর্নীতিমুক্ত ফুলবাড়ীয়া গড়ে তুলতে সক্ষম হবে, জঙ্গিবাদ বিরোধী লড়াইয়ে অগ্রনী সৈনিক মিন্টুর মাধ্যমে ফুলবাড়ীয়ার সকল উন্নয়ন কর্মকান্ড, কলেজ সরকারী ও শান্তি-শৃঙ্খলা ফিরে আসবে, তিনিই হবেন আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ফুলবাড়িয়া আসনের মহাজোটের প্রার্থী।
উপজেলা জাসদ সভাপতি মো: আব্দুর রহমান সরকারের সভাপতিত্বে জনসভায় প্রধান বক্তা ছিলেন ময়মনসিংহ-৬ ফুলবাড়ীয়া আসনের ১৪ দলের মনোনয়ন প্রার্থী, ময়মনসিংহ মহানগর জাসদ সভাপতি ও জাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সম্পাদক সৈয়দ শফিকুল ইসলাম মিন্টু।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জাসদ কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি আফরোজা হক রীনা, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুর রহমান চুন্নু, শওকত রায়হান, নইমুল আহসান জুয়েল, দপ্তর সম্পাদক আব্দুল্লাহহিল কাইয়ুম, ময়মনসিংহ জেলা জাসদ সভাপতি অ্যাডভোকেট গিয়াস উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট সাদিক হোসেন, জাতীয় কৃষক জোট সাংগঠনিক সম্পাদক রতন সরকার, ময়মনসিংহ জেলা জাসদ যুগ্ম সম্পাদক অ্যাডভোকেট নজরুল ইসলাম চুন্নু, অ্যাডভোকেট শিব্বির আহমেদ লিটন, শাহনেওয়াজ লিটন। সঞ্চালনা করেন উপজেলা জাসদ সাধারণ সম্পাদক মো: নজরুল ইসলাম মাস্টার ও সাংগঠনিক সম্পাদক মো: খলিলুর রহমান মাস্টার।
এর আগে তিনি বেলা সাড়ে ১১ টায় ময়মনসিংহ সার্কিট হাউজে বিটিভি’র ময়মনসিংহ উপকেন্দ্র ও জেলা তথ্য অফিসের কর্মকর্তাগনের সঙ্গে মত বিনিময় করেন।
এর আগে বিকাল ৩.১০মিনিটে ফুলবাড়ীয়া উপজেলা প্রবেশ করলে উপজেলা পরিষদের পক্ষ থেকে তথ্যমন্ত্রীকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান উপজেলা নির্বাহী অফিসার লীরা তরফদার ও থানা অফিসার ইনচার্জ শেখ কবিরুল ইসলাম। সন্ধ্যার পর ফুলবাড়িয়া উপজেলা পরিষদের সকল বিভাগের কর্মকর্তাগনের সঙ্গে মতবিনিময় করেন, ফেরার পথে ফুলবাড়িয়ায় শাহ আলমিয়া এতিমখানা পরিদর্শন করেন।
ময়মনসিংহ মহানগর জাসদ সভাপতি ও কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সম্পাদক সৈয়দ শফিকুল ইসলাম মিন্টু বলেন, মহাজোটের মনোনয়ন পেলে এবং সংসদ সদস্য নির্বাচিত হলে ফুলবাড়ীয়াবাসীর একজন সেবক হিসেবে কাজ করতে চাই। ফুলবাড়ীয়াকে উন্নত ডিজিটাল উপজেলা হিসেবে গড়ে তুলতে সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালিয়ে যাব।