| |

মহানবী (সাঃ) এর জীবনাদর্শ অনুসরণের মাধ্যমেই বিশ্ব শান্তি প্রতিষ্ঠা সম্ভব -অধ্যাপক ইউসুফ খান পাঠান

স্টাফ রিপোর্টারঃ ময়মনসিংহ জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অধ্যাপক ইউসুফ খান পাঠান বলেছেন, মহানবী (সাঃ) এর জীবনাদর্শ অনুসরণের মাধ্যমেই বিশ্ব শান্তি প্রতিষ্ঠা সম্ভব। তিনি আরও বলেন, ইসলাম শান্তির ধর্ম কিন্তু একটি অশুভ চক্র ইসলামের অপব্যাখ্যা দিয়ে আমাদের সাপ্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টের চেষ্টা চালিয়ে কতিপয় তরুণদের বিপদগামী করে সমাজে বিশৃংখলার পাঁয়তারা চালিয়ে যাচ্ছে। তিনি বলেন, মহানবী (সাঃ) সকল ধর্ম বর্ণের মানুষের প্রতি সম্মান প্রদর্শনের জন্য আমাদের শিক্ষা দিয়েছেন। তিনি তরুণ প্রজন্মকে আদর্শ মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে নবীজির উত্তম চরিত্র ও আদর্শ শিক্ষা দিতে আলেম উলামা ও অভিভাবকদের প্রতি আহ্বান জানান। পবিত্র ঈদ-ই-মিলাদুন্নবী (সাঃ) হিজরী ১৪৩৯ উপলক্ষে জেলা প্রশাসন ও ময়মনসিংহ মুসলিম ইনস্টিটিউটের উদ্যোগে আয়োজিত তিনদিনব্যাপী কর্মসূচীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে অধ্যাপক ইউসুফ খান পাঠান এসব কথা বলেন।
মুসলিম ইনস্টিটিউট এর সভাপতি জেলা প্রশাসক মোঃ খলিলুর রহমান এর সভাপতিত্বে ও পবিত্র ঈদ-ই-মিলাদুন্নবী (সাঃ) উদযাপন উপ-কমিটির আহ্বায়ক সাবেক ইফাম পরিচালক র.ক.ম নাজিম-উদ-দৌলার পরিচালনায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি এহতেশামুল আলম, কলেজ রোড জামে মসজিদের খতীব মুফতি মাওলানা মুস্তফা সারোয়ার, এতে সাগত বক্তব্য রাখেন ইনস্টিটিউটের সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ জাকির হোসেন। সভাপতির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক বলেন, মিথ্যা কথা না বলা, আমানতের খেয়ানত না করা, হালাল রুজি, ভিন্ন ধর্মালম্বীদের প্রতি সহানুভূতিশীল থাকা এবং সকল অন্যায়, অবিচার ও দুর্নীতি থেকে মুক্ত থাকলেই মহানবী (সাঃ) এর জীবনের আদর্শকে অনুসরণ করা যায়। পবিত্র কোরআন তিলাওয়াতের মাধ্যমে আলোচনা অনুষ্ঠান শুরুর আগে একটি নাতে রাসুল পরিবেশন করেন ময়মনসিংহ সংগীত বিদ্যালয়ের পরিচালক সাংবাদিক নজীব আশরাফ ও আনিকা তাহসিন। সবশেষে দেশ ও জাতির কল্যাণে দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। দোয়া পরিচালনা করেন মাওলানা নুরুল ইসলাম জেহাদী।
অনুষ্ঠানের শুরুতে বৃহস্পতিবার উদ্বোধনী দিবসের সকালে মুসলিম ইনস্টিটিউট প্রাঙ্গণ থেকে এক বিশাল র‌্যালী বের হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে মুসলিম ইনস্টিটিউটে গিয়ে শেষ হয়। প্রধান অতিথি হিসেবে র‌্যালীর উদ্বোধন ও র‌্যালীর নেতৃত্ব দেন জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অধ্যাপক ইউসুফ খান পাঠান ও জেলা প্রশাসক মোঃ খলিলুর রহমান। র‌্যালীর অগ্রভাগে ছিলেন জেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক এড. মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল, মুসলিম ইনস্টিটিউটের সাধারণ সম্পাদক ও সরকারী আনন্দমোহন কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর জাকির হোসেন, মহানগর আ’লীগ সভাপতি এহতেশামুল আলম ও পবিত্র ঈদ-ই-মিলাদুন্নবী (সাঃ) উদযাপন উপ-কমিটির আহ্বায়ক সাবেক ইফাম পরিচালক র.ক.ম নাজিম-উদ-দৌলা প্রমুখ। তিনদিনব্যাপী কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে ক্বিরাত, হাম্দ-নাত, আযান, আবৃত্তি, উপস্থিত জ্ঞান ও বিতর্ক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে। আগামী শনিবার বিকেলে সমাপনী অনুষ্ঠানে আলোচনা ও পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত হবে।