| |

শেখ হাসিনার অধীনে নির্বাচন রুখতে পারবেনা প্রাথমিক ও গনশিক্ষা মন্ত্রী আইনজীবী মোস্তাফিজুর রহমান এমপি

ইসলামপুর ॥ পৃথিবীর কোন শক্তিই শেখ হাসিনার অধীনে নির্বাচন রুখতে পারবেনা,জামালপুরের ইসলামপুরে সোলার হ্যারিকেন বিতরন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রাথমিক ও গনশিক্ষা মন্ত্রী আইনজীবী মোস্তাফিজুর রহমান এ কথা বলেন।
তিনি আরো বলেন,বাংলাদেশে চাকুরীজীবীদের বেতন বাড়ছে,দেশ আজ মধ্যম আয়ের দেশে পরিনত হয়েছে,অথচ আমাদের কৃষকের আলুর দাম বাড়লে অনেকের মাথা ব্যাথা হয়ে দাড়ায়।
আমাদের সরকার শিক্ষা খাতে ব্যপক উন্নয়ন করেছে,বিদ্যুৎ সোলার,বই,উপবৃত্তি দিচ্ছে। তারপরেও আমরা নাকি কিছুই পারছিনা দেশ নাকি রসাতলে যা”্ছ।ে আমি বলতে চাই উনারা তো বাংলাদেশে চেয়ে থাকেননা,তারা তো পাকিস্থানে চেয়ে থাকেন। তাই উন্নয়নে জোয়ার দেখতে পাননি।
,আমরা নাকি লুট করি, বেগম জিয়া কোথায় লুট হলো একটু দেখিয়ে দিবেন। বিএনপির সময় কৃষকদের সার নিতে হলে জমির কাগজ লাগতো। আর এখন দেখের সারের জন্য লাইন ধরে দাড়িয়ে থাকতে হয়না।
বেগম মা জননী আপনি,আপনার স্বামী,দেবর এরশাদ অনেকদিন ক্ষমতায় থেকেছেন অথচ দেশের কোন উন্নয়ন করতে পারেননি। আর আমার নেত্রী বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনা চেলেঞ্জ গ্রহন করে পদ্মা সেতু তৈরি করেছে। আগামী ১৮সালের মধ্যে বাংলার প্রতিটি ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ পৌছে দেব। আমাদের কোন বাধাই রুখতে পারবেনা।
মা জননী আমরা লুট করে খেলেও আমরা কাজ করেছি,আপনি কি করেছেন। আপনারা তো কিছুই করতে পারেননি,হাতিরঝিল টাও তৈরি করতে পারেননি। অথচ আপনারা পাকবাহিনীর আত্বসমর্পন স্থানে আপনারা শিশু পার্ক করেছেন। আর আমরা স্বাস্থ্য সেবা মানুষের দৌড় গোড়ায় পৌছে দিয়েছি আপনারা কি করেছেন।
মা জননী আপনারা বলেন, নৌকা ভোট দিলে গোলমাল হবে নৌকায় ভোট দেওয়া যাবেনা। আপনি জেনে রাখুন নৌকায় ভোট দিলে দেশ উন্নয়নের দিকে যায়। তাই বাংলার মানুষ আর নৌকা ভ’লবেনা।
আমার নেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গ্রাম ও শহর একাকার করে দেবে,এটাই আমাদের প্রতিজ্ঞা। আমরা খবরের কাগজ পড়ি কিন্তু খবরের কাগজ পড়ে শেখ হাসিনা দেশ চালায়না।
আমাদের নেতাকর্মীদের উপর বোমা মারা হয়েছে.আপনি দেখেনতো আপনাকে বোমা মেরেছে কিনা,আমরা বোমা মারার রাজনীতি করিনা।
তাই আমাদেরকে বাংলার মানুষ ক্ষমতায় এনেছে। আমাদের ভারত পাকিস্থান ক্ষমতায় আনেনি। তাই বাংলার জনগনের সকল প্রকার সুযোগ সুবিধা দৌড়গোড়ায় পৌছে দেওয়ার জন্য আমাদের তথা আওয়ামী লীগের রাজনীতি।
খুনিরা আবারো রাজত্ব করতে চায়, তাই তাদের রুখে দাড়ানোর সময় এখনি।
তিনি আরো বলেন, শতশত ভাষানী ,শতশত ফজলুল হকের মত নেতা জন্ম নিলেও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জন্ম না নিলে এ দেশ স্বাধীন হতো না।
ইসলামপুর ছাত্রছাত্রীদেরমাঝে সোলার হ্যারিকেন বিতরন অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন। উপজেলা প্রশাসন আয়োজনে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট কবীর উদ্দিনের সভাপতিত্বে এতে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সংসদ সদস্য আলহাজ¦ ফরিদুল হক খান দুলাল।
অন্যানের মধ্যে উপজেলা চেয়ারম্যান নবী নেওয়াজ খান লোহানী বিপুল,পৌর মেয়র আঃ কাদের শেখ, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মিজানুর রহমান,জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মুখলেছুর রহমান জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা শহীদুল ইসলাম,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আমিরুল ইসলাম,জেলা পরিষদ সদস্য ওয়ারেছ আলী,বেলগাছা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আঃ মালেক প্রমূখ বক্তব্য রাখেন।
উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক আইনজীবী আঃ সালাসের সঞ্চালনায় এ সময় আওয়ামী লীগ,যুবলীগ,ছাত্রলীগসহ অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।
এতে উপজেলা প্রাথমিক ও মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকও শিক্ষার্থীরা অংশ নেয়। অনুষ্ঠিত সভায় ৬হাজার শিক্ষার্থীর মাঝে সোলার হ্যারিকেন বিতরন করা হয়।