| |

হালুয়াঘাট পৌরসভা নির্বাচনে প্রথম নগরপিতা হতে চান প্রশান্ত কুমার সাহা

হালুয়াঘাট  প্রতিনিধি ঃ আগামী ২৯ মার্চ ময়মনসিংহের সীমান্তবর্তী হালুয়াঘাট পৌরসভায় প্রথম অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে পৌরসভা নির্বাচন । উক্ত নির্বাচনকে ঘিরে প্রার্থীদের চলছে নিরব গনসংযোগ। প্রচার প্রচারনায় নির্বাচনী উত্তাপ বইতে শুরু করেছে পৌর শহরে। ভোটের হিসাব কষছেন সাধারণ ভোটার সহ প্রতিদন্ধী প্রার্থীগণ।
হালুয়াঘাট পৌরসভা নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে প্রশান্ত কুমার সাহা জনগণের ভোটে প্রথম নগর পিতা হতে চান। তিনি একান্ত সাক্ষাতকারে এ প্রতিবেদককে জানান, বিগত ১৯৫২ সনের ২২ ডিসেম্বর স্বগীয় আশুতোষ সাহার সহ ধর্মিণী স্বর্গীয় নির্মলা রানী সাহার গর্ভে জন্ম গ্রহন করেন। যুবক বয়স থেকে তিনি বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও ক্রীড়া সংঘঠনের সফল ভাবে দ্বায়িত্ব পালন করেন। ১৯৬৮ থেকে ১৯৭৩ সন পর্যন্ত একাধারে সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংঘঠন হালুয়াঘাট উদয়ন সংঘের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতির দ্বায়িত্ব পালন করেন। ১৯৭৬ সনে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এম,কম ¯œাতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করেন। ১৯৭৬ থেকে ১৯৮০ সন পর্যন্ত প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি হিসেবে হালুয়াঘাট শহীদ স্মৃতি সংসদের গুরু দ্বায়িত পালন করেন। ১৯৭৮ সন থেকে ১৯৭৯ পর্যন্ত ময়মনসিংহের ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নাসিরাবাদ কলেজে অধ্যাপনা করেন। ১৯৮২ থেকে ১৯৮৩ সন পর্যন্ত উপজেলা যুবলীগের সভাপতির দ্বায়িত্ব সফল ভাবে পালন করেন। ১৯৮২ থেকে ১৯৮৮ সন পর্যন্ত হালুয়াঘাট ব্যবসায়ীদের কল্যাণে ব্যবসায়ী উন্নয়ন সমিতির সভাপতি হিসেবে সততা ও নিষ্ঠার সহিত দ্বায়িত্ব পালন করেন। যা সাধারণ ব্যবসায়ীগণ এখনো স্মরণ করেন। পরবর্তিত্বে ২০০০ সন থেকে ২০০৪ সন পর্যন্ত বাংলাদেশ ভারত এর যৌথ বানিজ্যিক পয়েন্ট কড়ইতলী স্থল বন্দরের বাংলাদেশী আমদানী কারকদের স্বার্থ সংষিøষ্ট বিষয়ে সততার সহিত সফল ভাবে কড়ইতলী কোক এন্ড কোল ইম্পোটার্স এসোসিয়েশন এর সাধারণ সম্পাদকের দ্বায়িত্ব পালন করেন। দীর্ঘদিন যাবৎ সনাতন ধর্ম্বালম্বীদের শীর্ষ স্থানীয় প্রতিষ্ঠান উপজেলা পুজা উদযাপন পরিষদের সভাপতির দ্বায়িত্ব দক্ষতার সহিত পালন করে আসছেন। ২০০৫ থেকে ২০০৭ পর্যন্ত একাধারে দুই দুই বার ময়মনসিংহ চেম্বার অফ কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি এর সদস্য হিসেবে সততার সহিত দ্বায়িত্ব পালন করেন। পাশাপাশি ২০০৫ সন থেকে একাধারে চার চার বার বাংলাদেশের শীর্ষ স্থানীয় ব্যবসায়ীক সংঘঠন এফ,বি,সি,সি,আই এর সদস্য হিসেবে দক্ষতার সহিত দ্বায়িত্ব পালন করেন। এ ছাড়াও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে সুনামের সাথে অংশ গ্রহন করেছেন।
জানা যায়, হালুয়াঘাট পৌরসভার প্রথম নির্বাচনে ইতিহাসের প্রথম নগর পিতা নির্বাচিত করতে স্বতন্ত্র প্রার্থী প্রশান্ত কুমার সাহাকে নিয়ে সাধারণ ভোটারদের মাঝে বইছে আলোচনার ঝড়। প্রতিনিয়তই বৃদ্ধি পাচ্ছে তার জনপ্রিয়তা ও সমর্থক গোষ্টী । সৎ ও যোগ্য প্রার্থীর মাপকাঠিতে স্বতন্ত্র প্রার্থী প্রশান্ত কুমার সাহা দলমত ধর্ম বর্ণ নির্বিশেষে সাধারণ ভোটারদের মনে ঠাঁই করে নিয়েছেন। পৌরসভার ব্যবসায়ী ও সর্বসাধারণের জন্য পানীয় জলের ব্যবস্থা, ডেনেজ ব্যবস্থা সহ নানা উন্নয়ন, মাদক মুক্ত সমাজ গঠন, আধুনিক ও ডিজিটাল পৌরসভা গড়তে চান তিনি। জনগনের ভোটে তিনি নির্বাচিত হবেন বলে দৃঢ় প্রত্যয় ব্যাক্ত করেন। এলাকায় সকল শ্রেণী পেশার মানুষের সাথে রয়েছে তার নিবির সম্পর্ক,ভোটারদের মন জয় করে পৌরবাসীর বিশ্বস্থ নগরপিতা হিসাবে নাম লেখাতে চান ইতিহাসে।
পৌর এলাকার ভোটারদের সাথে কথা বললে তারা বলেন, আমরা চাই একজন যোগ্যপ্রার্থী, সৎ ও কর্মঠ এবং ভাল মানুষ যার মাধ্যমে পৌর এলাকার সার্বিক উন্নয়ন সাধিত হবে । মাদক ও নেশা মুক্ত সমাজ গঠিত হবে। সন্ত্রাস মুক্ত, আধুনিক হালুয়াঘাট পৌরসভা গঠন হবে। পরিচ্ছন্ন বাজার, ড্রেনেজ ব্যবস্থাসহ মানুষের আস্থার কেন্দ্র বিন্দুতে পরিণত হবে। এমন প্রত্যাশায় নির্বাচনের আশায় দিন গুনছেন হালুয়াঘাট পৌরবাসী।