| |

আমাদের শিক্ষা পদ্ধতিটাকে আমুল পরিবর্তন করা দরকার-প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট মুজিবুল হক চুন্নু এমপি

নজরুল ইসলাম খায়রুল : প্রতি বছর বাংলদেশে ১৮ থেকে ২০ লাখ মানুষ কর্মে জন্য চাকরি বাজারে আসে। দেশে-বিদেশে মিলিয়ে ৮ থেকে ১০ লাখ ছেলে-মেয়ের চাকরি হয় বাকী অন্যরা বেকার থাকে। আমাদের শিক্ষার যে পদ্ধতিটা সেই পদ্ধতিটাকে আমুল পরিবর্তন করা দরকার।

গতকাল রোববার (১১ মার্চ) দুপুরে কিশোরগঞ্জের তাড়াইল মুক্তিযোদ্ধা সরকারি কলেজের রজত জয়ন্তী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় শ্রম ও কর্ম সংস্থান প্রতিমন্ত্রী জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য অ্যাডভোকেট মুজিবুল হক চুন্নু এমপি এসব কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমাদের এই যুব শক্তিকে যদি দক্ষতায় সৃষ্টি করতে না পারি তা হলে দেশেরও উপকার হবে না, আর তাঁদেরকে কাজে লাগানোও যাবে না। তাই, সরকারের পক্ষ থেকে আমরা সারা দেশে জাতীয় দক্ষতা উন্নয়ন কাউন্সিল গঠন করার চিন্তা করেছি।

তিনি আরও বলেন, লেখাপড়া আমাদের প্রয়োজন, হায়ার এডুকেশন আমাদের এত প্রয়োজন নাই। আমাদের যুব সমাজ যারা বেশি মেধাবী তাঁরা হায়ার এডুকেশনে যাবে আর যারা মাঝামাঝি তাঁরা কারিগরি শিক্ষায় যাবে। সেই ব্যবস্থাই আমরা করছি।

আগামীতে নিবাচিত হলে তাড়াইলে একটি টেকনিকেল কলেজ প্রতিষ্ঠা ছাড়াও তাড়াইল মুক্তিযোদ্ধা কলেজকে বিশ্ববিদ্যালয় কলেজে উন্নয়ন করার প্রতিশ্রুতি দেন প্রতিমন্ত্রী।

কলেজের অধ্যক্ষ (ভারপ্রাপ্ত) ফারুখ উদ্দিন আহমেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন-কিশোরগঞ্জ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট মো. জিল্লুর রহমান, তাড়াইল উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. কামাল উদ্দিন ভূঞা কাঞ্চন, তাড়াইল উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) লুৎফুন নাহার, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. আজিজুল হক ভূঞা মোতাহার, জাতীয় পাটির আহবায়ক মোফাজ্জল হোসেন চাঁন মিয়া, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক গিয়াস উদ্দিন লাকী, এডহক কমিটির সদস্য মো. আব্দুল আহাদ ভূঞা প্রমুখ।
পরে বিকেলে শ্রম ও কর্ম সংস্থান প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট মুজিবুল হক চুন্নু এমপি উপজেলার উত্তর সেকান্দার নগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নবনির্মিত ভবন উদ্বোধন করেন।