| |

স্বামীর গ্রেফতারের খবর শোনে স্ত্রীর মৃত্যু

গৌরীপুর (ময়মনসিংহ) সংবাদদাতা ॥
ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার মাওহা ইউনিয়নের ঝলমলা গ্রামে মঙ্গলবার (১৫ মে) সন্ধ্যা ৭ টার দিকে স্বামী আব্দুল কাদিরের গ্রেফতারের খবর শোনে স্ত্রী সাবিকুন্নাহার (৪৫) হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করে। সাবিকুন্নাহরের একটি ৫মাসের শিশু সন্তান রয়েছে। তাঁর মৃত্যুতে পরিবার ও এলাকাবাসীর মাঝে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।
আব্দুল কাদিরের পুত্র ফুল মিয়া জানান, আব্দুল কাদির (৬০) কাঠ মিস্ত্রীর কাজ করতো। সে ২০১১ সালের একটি জুয়া খেলার মামলার আসামী। তাঁর বাবাকে পুলিশ গ্রেফতার করতে প্রায় প্রায়ই তাদের বাড়িতে আসতো। ঘটনার দিন সন্ধ্যায় গৌরীপুর থানার এসআই রুহুল আমিন তাদের বাড়িতে এসে তাঁর বাবকে খোঁজে এবং তার মাকে ধমকা ধমকী করে। তাঁর মা সাবিকুন্নাহার খুব ভীতু প্রকৃতির মানুষ ছিল। এর কিছুক্ষণ পরই পুলিশ তার বাবা আব্দুল কাদিরকে স্থানীয় নহাটা বাজার থেকে গ্রেফতার করে। এ খবর শুনে তার মা সাবিকুন্নাহার (৪৫) ঘর থেকে বের হয়ে চিৎকার দিয়ে দৌড়ে রাস্তারদিকে যেতেই জ্ঞান হারিয়ে পড়ে যান। এ সময় বাড়ির অন্যান্য লোকজন এসে তাঁকে তোলে মাথায় পানি দেয়। কিন্তু ১০ মিনিটের মধ্যেই তাঁর মৃত্যু হয়। আব্দুল কাদিরের বড় ভাই আব্দুল আলী ও বোন ফুলবানু জানান, সাবিকুন্নাহার খুব ভীতু প্রকৃতির মানুষ ছিল। তার ৪ সন্তানের মাঝে ছোট ছেলেটির বয়স ৫মাস। তাঁর মৃত্যুতে ছোট দুটি সন্তানের লালন পালন করা কষ্টসাধ্য হয়ে পড়বে।
গৌরীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ দেলোয়ার আহাম্মদ আব্দুল কাদিরকে গ্রেফতারের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, সে গৌরীপুর থানার ননএফআইআর মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত আসামী। তবে তাঁর স্ত্রীর মর্মান্তিক মৃত্যুতে মানবিক কারণে একজন ইউপি মেম্বারের জিম্মায় দেয়া হয়েছে।