| |

আমরা সেই নেতার পাশে আছি যার হাতে সাধারণ মানুষ ও বঙ্গবন্ধুর নৌকা নিরাপদ

স্টাফ রিপোর্টার : আওয়ামী লীগ যার হাতে সুসংগঠিত থাকবে, দলের নেতাকর্মীরা ও সাধারণ মানুষ থাকবে নিরাপদ -আসছে নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রীর কাছে আমরা তার জন্যই মনোনয়ন প্রার্থনা করবো।

যার হাতে দল এমনকি নেত্রকোনার পূর্বধলাবাসী তথা সাধারণ মানুষ নিরাপদ নয় আমরা কোনোভাবেই তাকে আর সমর্থন করবো না। এমন একজন নেতাকে দলের নেতৃত্বে আনতে চাই যিনি দলকে গতিশীল করার লক্ষ্যে আপামর জনতার স্বার্থে কাজ করবেন।

নেত্রকোনার পূর্বধলা উপজেলার খালিশপুর ইউনিয়নের বাজারে এক ইফতার মাহফিল ও আলোচনা সভা হয়। অনুষ্ঠান শেষে উপজেলার রাজনৈতিক পরিস্থিতি জানতে চাইলে প্রসঙ্গক্রমে সাংবাদিককে এসব কথা বলেন, পূর্বধলা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা যুবলীগের সভাপতি জাহিদুল ইসলাম সুজন।

তিনি আরো বলেন, উপজেলার একনায়কতন্ত্রের রাজনীতিতে দলের ভাবমূর্তি সাধারণ মানুষের কাছে ব্যাপকভাবে নষ্ট হচ্ছে। কেউ যদি নিজের স্বার্থসিদ্ধির জন্য জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নৌকাকে ডুবিয়ে দেন : তবে সে যেই হোক তাকে আমরা ছুঁড়ে ফেলতে দ্বিধা করবো না।

প্রধানমন্ত্রী বয়স্ক, প্রতিবন্ধী, বিধবাসহ নানারকম ভাতা দিচ্ছেন দেশের মানুষকে এগুলো কেনোকিছুর বিনিময়ে নয়। প্রত্যন্ত অঞ্চলে ঘরে ঘরে বিদ্যুত পৌঁছে দিচ্ছেন সম্পূর্ণ বিনামূল্যে। কিন্তু আমরা প্রধানমন্ত্রীর সেই মহৎ উদ্দেশ্যকে ভুলন্টিত করে সাধারণ মানুষের প্রাপ্য সেইসব সুবিধা থেকেও বিনিময় নিবো তা হতে পারে না।

সুজন একপর্যায়ে আরো জানান, আসছে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে আওয়ামী লীগের হয়ে পূর্বধলায় গণসংযোগ করছেন বঙ্গবন্ধু ডিপ্লোমা প্রকৌশলী পরিষদ ময়মনসিংহ বিভাগের সহ-সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার তুহিন আহম্মদ খান। তিনি পূর্বধলা উপজেলার খালিশপুর ইউনিয়নের স্থায়ী বাসিন্দা। দীর্ঘ প্রবাস জীবনের পর এবার তিনি দেশ ও মানুষের সেবায় কাজ করতে চান। ক্লিন ইমেজের লোক হিসেবে আগামী দিনে তুহিনের নেতৃত্বে কাজ করতে চায় তৃণমূলের নেতাকর্মীরা।

প্রধানমন্ত্রীর পা ছুঁয়ে দোয়া নিয়ে হলেও চেয়ারম্যান সুজন তিনি নিজেও তুহিনের মনোনয়ন পাওয়ার জন্য প্রার্থনা জানাবেন বলে জানান তিনি। জনতার আশা-আকাঙ্ক্ষা পূরন ও বঙ্গবন্ধুর নৌকা যার হাতে নিরাপদ থাকবে তার জয়ের জন্যে নিজের জীবন উৎসর্গ করবেন বলেও চেয়ারম্যান সুজনের মন্তব্য।