| |

শশ্মান চত্ত্বরে ডিবি পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে মাদক ব্যবসায়ী নিহত ॥ দুই পুলিশ আহত ॥ মাদকদ্রব্য,গুলির খোসা ও দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ময়মনসিংহ জেলা গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) সাথে শহরের কেওয়াটখালী শশ্মান চত্ত্বরে বন্দুকযুদ্ধে অজ্ঞাতনামা এক মাদক ব্যবসায়ী নিহত হয়েছে। এ সময় ডিবি পুলিশের দুই সদস্য আহত হয়। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ একশত গ্রাম হেরোইন, একশত পিচ ইয়াবাহ, চারটি গুলির খোসা ও ২টি বড় রাম দা উদ্ধার করেছে। আহত পুলিশ সদস্যদের পুলিশ লাইন্স হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ওসি আশিকুর রহমান জানান, শহরের কেওয়াটখালী শশ্মান এলাকায় একদল মাদক ব্যবসায়ী মাদক বিক্রির লক্ষ্যে নিজেদের মধ্যে মাদক ভাগাভাগি করছে-এ ধরণের খবরের সত্যতা যাচাইসহ নিজস্ব সোর্সের মাধ্যমে নিশ্চিত হয়ে শনিবার দিবাগত রাত (রবিবার) রাত দেড়টার দিকে গোয়েন্দা পুলিশের একটি দল শশ্মান এলাকায় অভিযানে যায়। ডিবির ওসি আশিকুর রহমানের নেতৃত্বে পুলিশের দলটি ঘটনাস্থলে পৌছলে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে মাদক ব্যবসায়ীরা পুলিশের উপর ইট-পাটকেল নিক্ষেপসহ গুলিবর্ষণ শুরু করে। এ খবর কোতোয়ালী পুলিশের কাছে পৌছলে কোতোয়ালী পুলিশের মোবাইল টিম ঘটনাস্থলে যান। এদিকে ডিবি পুলিশ বাড়তি শক্তি সঞ্চার করে আত্মরক্ষার্থে গুলি চালায়। গুলিবিনিময়ে কোতোয়ালী পুলিশও সম্পৃক্ত হয়। এসময় উভয় পক্ষের মাঝে গুলিবিনিময়কালে মাদক ব্যবসায়ীরা পালিয়ে গেলেও অজ্ঞাত এক মাদক ব্যবসায়ী গুলিবিদ্ধ হয়ে মাটিতে লুটে পড়ে। এ সময় ডিবি পুলিশের দুই সদস্য আহত হয়। গুলিবিদ্ধ অজ্ঞাত মাদক ব্যবসায়ীকে পুলিশ উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন। এছাড়া আহত দুই পুলিশ সদস্যকে উদ্ধার করে ময়মনসিংহ পুলিশ লাইন্স হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ একশত গ্রাম হেরোইন, একশত পিচ ইয়াবাহ, চারটি গুলির খোসা ও ২টি বড় রাম দা উদ্ধার করেছে। এ খবর লেখা পর্যন্ত নিহত মাদক ব্যবসায়ীর পরিচয় পাওয়া যায়নি। তার লাশ ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে রয়েছে।