| |

ধর্মমন্ত্রীর ছোট ভাই আফাজ উদ্দিনের জানাযা ও দাফন সম্পন্ন

স্টাফ রিপোর্টার ঃ ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমানের ছোট সহোদর ভাই ময়মনসিংহ সদর উপজেলা স্বেচ্ছাসেকবলীগের সভাপতি আকুয়া ইউপি চেয়ারম্যান ও বাংলাদেশ ইউনিয়ন পরিষদ ফোরাম ময়মনসিংহ শাখার সভাপতি আফাজ উদ্দিন সরকারের লাশের জানাযা ও দাফন সম্পন্ন হয়েছে। গতকাল রবিবার বাদ আছর আকুয়া মড়লবাড়ি মডেল মসজিদের সামনে মরহুমের দ্বিতীয় নামাজে জানাযাশেষে তার লাশ পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়। এর আগে শহরের আঞ্জুমানে ঈদগাহ মাঠে বাদ জোহর আফাজ উদ্দিন সরকারের প্রথম নামাজে জানাযা অনুষ্ঠিত হয়। নামাজে জানাযায় মরহুমের বড় ভাই ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমান, ফুলবাড়ীয়া থেকে নির্বাচিত এমপি আলহাজ মোসলেম উদ্দিন এডভোকেট, গৌরীপুরের এমপি নাজিম উদ্দিন আহম্মেদ, ফুলপুরের এমপি শরীফ আহম্মেদ, মুক্তাগাছার এমপি সালাহ উদ্দিন আহম্মেদ মুক্তি, ময়মনসিংহ বিভাগীয় কমিশনার জিএম সালেহ উদ্দিন, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অধ্যাপক ইউসুফ খান পাঠান,পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম, জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি এডভোকেট জহিরুল হক, মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি এহতেশামূল আলম, জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এড. মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল, ময়মনসিংহ চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি আমিনুল হক শামীমসহ প্রশাসনের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা এবং আওয়ামীলীগের বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মীসহ সকল দলের রাজনৈতিক নেতাকর্মী শুভাকাঙ্খিরা উপস্থিত ছিলেন। শোলাকিয়া ঈদগাহ মাঠের ইমাম ও আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পন্ন মাওলানা ফরিদ উদ্দিন মাসউদ নামাজে জানাযায় ইমামতি করেন। এর আগে মরহুমের পরিবারের পক্ষে তার ভাতিজা ও মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মোহিত উর রহমান শান্ত বক্তব্য রাখেন। উল্লেখ্য গত ১১ মে আফাজ উদ্দিন সরকার হৃদরোগে আক্রান্ত হন। তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকার ইউনাইটেড হাসপাতালে এবং সেখান থেকে পরে থাইল্যান্ডে নেওয়া হয়। থাইল্যান্ডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত ২৫ মে শুক্রবার রাত সাড়ে আটটার দিকে তিনি মৃত্যুবরণ করেন। উল্লেখ্য মরহুমের লাশ এদিন ভোরবেলায় নিজ বাসভবনে নিয়ে আসা হলে নগরীর অসংখ্য লোক তাকে এক নজর দেখার জন্য ভীর করে ও তাঁকে ফুলেল শ্রদ্ধা জানায়।