| |

নারী এশিয়া কাপ জয়ী জ্যোতিকে শেরপুরে নাগরিক সংবর্ধনা

নারী এশিয়া কাপ জয়ী বাংলাদেশ জাতীয় প্রমীলা ক্রিকেট দলের নির্ভরযোগ্য সদস্য হিসেবে নিগার সুলতানা জ্যোতিকে নাগরিক সংবর্ধনা দেয়া হয়েছে। তার নিজ জেলা শেরপুরের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে জেলা ক্রিড়া সংস্থার আয়োজনে বুধবার দুপুরে তাকে এই সংবর্ধনা দেয়া হয়।
জেলা ক্রিড়া সংস্থার সভাপতি জেলা প্রশাসক ড. মল্লিক আনোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন স্থানীয় সাংসদ ও জাতীয় সংসদের হুইপ আতিউর রহমান আতিক। নাগরিক সংগঠন জনউদ্যোগের আহবায়ক আবুল কালাম আজাদের সঞ্চালনায় পুলিশ সুপার কাজী আশরাফুল আজীম, জেলা ক্রিড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক নাজিমুল হক, সমাজকর্মী রাজিয়া সামাদ ডালিয়া, গণমাধ্যমকর্মী হাকিম বাবুল ও ময়মনসিংহ বিভাগীয় ওমেন্স ক্রিকেট কোচ এসএম মোখলেসুর রহমান বক্তব্য রাখেন।
এসময় জেলার বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠন, সরকারী-বেসরকারী প্রতিষ্ঠান ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা জ্যোতিকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান। অনুষ্ঠানে স্থানীয় সাংসদ জেলা ক্রিড়া সংস্থার মাধ্যমে জ্যোতিকে ১লাখ টাকা সম্মাননা প্রদানের ঘোষণা দেন।
জ্যোতি শেরপুর শহরের ১নং ওয়ার্ডের রাজবল্লভপুর এলাকার সিরাজুল হক ও সালমা হক দম্পতির মেয়ে। ২০১৫ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর পাকিস্তানের বিপক্ষে করাচিতে টি২০ এবং একই দলের বিপক্ষে ৬ অক্টোবর ওয়ানডে অভিষেক ঘটে। ২০১৬ সালে আইসিসির চোখে সেরা পাঁচ উদীয়মান তারকার স্বীকৃতি পান।
সর্বশেষ এশিয়া কাপে ছয়বারের চ্যাম্পিয়ন ভারতকে হারিয়ে ইতিহাস গড়েছে বাংলাদেশের মেয়েরা। আর এ ইতিহাস গড়ার পেছনে ব্যাট হাতে দারুণ অবদান রেখেছেন বাংলাদেশ নারী ক্রিকটে দলের উইকেটকিপার ও ব্যাটম্যান নিগার সুলতানা জ্যোতি।
বাংলাদেশের এই ক্রিকেট তারকা ব্যাট হাতে ভারতের বিপক্ষে ২৪ বলে ২৭ রান করেছেন। যা ফাইনাল ম্যাচ দলীয় সর্বোচ্চ রান। এছাড়া তার এ সর্বোচ্চ রানের বেশ ভালো দুটি পার্টনাশীপ তৈরী হয়, যা বাংলাদেশের জয়কে আরও সহজ করে দেয়।