| |

গৌরীপুরে টিভিআই সুপারিডেনটেন্টের অপসারণের দাবিতে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ ও স্মারকলিপি প্রদান ॥ দুই শ্রেণির পরীক্ষা স্থগিত

শফিকুল ইসলাম মিন্টু,
বিভিন্ন দূর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগে গৌরীপুর টেক্সটাইল ভোকেশনাল ইনস্টিটিউট (টিভিআই) এর সুপারিটেনডেন্ট মোঃ মোজাম্মেল হকের অপসারণের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও স্মারকলিপি প্রদান করেছে শিক্ষার্থীরা। বুধবার(৪জুলাই) দুপরে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা ওই প্রতিষ্ঠান থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করে পৌর শহর প্রদক্ষিণ করে উপজেলা পরিষদ চত্বরে এসে সমাবেশ করে। উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মোঃ মিজানুর রহমানের নেতৃত্বে ছাত্রলীগের একটি অংশ বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশে অংশগ্রহণ করে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে সংহতি প্রকাশ করে। পরে শিক্ষার্থীরা ইউএনও’র মাধ্যমে শিক্ষামন্ত্রী বরাবর একটি স্মারকলিপি প্রদান করে। ইউএনও ফারহানা করিম স্মারকলিপি গ্রহণের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, শিক্ষার্থীদের অভিযোগগুলো খতিয়ে দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।
সমাবেশে শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করে বলেন, সুপারিডেনটেন্ট মোঃ মোজাম্মেল হক এই প্রতিষ্ঠানে যোগদানের পর থেকে ভর্তি বাণিজ্য, শিক্ষার্থীদের জোরপূর্বক কোচিং করানো, অতিরিক্ত ফি আদায় সহ নানা ধরণের দুর্নীতি ও অনিয়মে জড়িয়ে পড়েছেন। শিক্ষাবোর্ডের নির্দেশনা অনুযায়ী শিক্ষাীর্থদের ভর্তি ফি ৬৫০ টাকা হলেও ১ হাজার থেকে ৩ হাজার টাকা করে আদায় হচ্ছে। অভ্যন্তরীন পরীক্ষা ফি ৩শ টাকা নেয়ার পর এখন আবার ৫শ টাকা করে নেয়া হচ্ছে, বাধ্যতামূলক কোচিং না করলে জরিমানার হুমকি, উপবৃত্তির টাকা বিতরণে অনিয়ম করছে। বুধবার অনুষ্ঠিত পরীক্ষা শেষে শিক্ষার্থীরা এসব অনিয়মের বিরুদ্ধে আন্দোলন করতে পারে এমন খবর পেয়ে সুপারিডেনটেন্ট শিক্ষার্থীদের সকাল ১০টায় অনুষ্ঠিত নবম শ্রেণির ৩ ঘন্টার পরীক্ষা ১ ঘন্টায় শেষ করে তাদের বাড়ি পাঠিয়ে দেন। আমরা এসবের প্রতিবাদ করলে তিনি আমাদের প্রতিষ্ঠান থেকে বের করে দেয়ার হুমকি দিচ্ছেন।
উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মোঃ মিজানুর রহমান বলেন, আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের দাবিগুলো যৌক্তিক। শিক্ষার্থীদের ন্যায়সংঙ্গত এই ধরণের আন্দোলনে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ সবসময় পাশে ছিলো, ভবিষ্যতেও থাকবে। আশা রাখি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ দ্রুত সময়ের মধ্যে শিক্ষার্থীদের যৌক্তিক দাবিগুলো মেনে নিয়ে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শান্তিপূর্ণ পরিবেশ ফিরিয়ে আনবে।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে সুপারিডেনটেন্ট মোঃ মোজাম্মেল হক বলেন, কিছুদিন আগে শিক্ষার্থীরা একটি ইস্যু নিয়ে আন্দোলন করেছিলা সেটা মীমাংসা হয়ে গেছে। আজ আবার কেনো আন্দোলন করলো বিষয়টি আমার জানা নেই। নির্ধারিত সময়ের পূর্বে পরীক্ষা শেষ করার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, নবম ও দশম শ্রেণির ছাত্ররা অর্ধবর্ষের পরীক্ষা দিতে এসে বিশৃঙ্খলার আশঙ্কা করছিলো। তাই আজকের দুটি পরীক্ষা স্থগিত করে তাদের বাড়ি পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে।