| |

বহুমাত্রিক পাটপণ্যের ব্যবহার বাড়ানো লক্ষে মাদারগঞ্জে স্থাপিত হচ্ছে শেখ হাসিনা স্পেশালাইজড জুট টেক্সটাইল মিল

এসএম হালিম দুলাল জামালপুর প্রতিনিধি॥বিশ্ব জুড়ে পাটপন্যের বহুমাত্রিক ব্যবহার বাড়ানো এবং বাণিজ্যিক সম্ভাবনাকে কাজে লাগাতে জামালপুর জেলার মাদারগঞ্জ উপজেলায় স্থাপন করা হচ্ছে ‘শেখ হাসিনা স্পেশালাইজড জুট টেক্সটাইল মিল’। প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করতে ৫ শ ১৮ কোটি ৮৫ লাখ টাকার অনুমোদন দিয়েছে একনেক। ফলে জামালপুেরর শিক্ষিত বেকারসহ দরিদ্র মানুষের কর্মসংস্থানের পাশাপাশি জাতীয় অর্থনীতিতে অবদান রাখার সুযোগ সৃষ্টি হবে।
জানাগেছে, বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন বাংলাদেশ পাটকল কর্পোরেশন(বিজেএমসির) উদ্যোগে মাদারগঞ্জ উপজেলার কামারিয়ার চরে এলাকায় ৩৪ একর জমির উপর স্থাপিত হতে যাচ্ছে ‘শেখ হাসিনা স্পেশালাইজড জুট টেক্সটাইল মিল’। বিজেএমসির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে মিলটি আগামী দুই বছরের মধ্যে অথ্যাৎ ২০২০সাল নাগাদ স্থাপনের কাজ শেষ করবে।
সংশ্লিষ্ট সূত্র মতে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকার বিশ্ব জুড়ে পাটের বহুমাত্রিক ব্যবহার বাড়ানো লক্ষে গুরুত্ব দিয়ে যোগ উপযোগি কারখানার স্থাপন করে, কর্মসংস্থান সৃষ্টি করে বেকার হ্রাস ও দরিদ্র্যের হার কমানোর জন্য মিল স্থাপনে সরকার উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। যেহেতু বর্তমানে দেশের রফতানি আয়ের বেশিরভাগ পোশাক খাত থেকে আসে। তাই অর্থনীতি আরো গতিশীল করতে রফতানি খাত বহুমুখীকরণ করা প্রয়োজন। পাটপণ্য পরিবেশবান্ধব, তাই দেশ-বিদেশে আন্তর্জাতিক বিশ্বে এর ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। শুধু তাই নয়, মিলটি স্থাপনের পর পোশাক শিল্পের জন্য তিন স্তরের জিএসপি সুবিধা আদায় করার জন্য পরিবেশবান্ধব সংমিশ্রিত সুতা ও কাপড় উৎপাদন করা অতি সহজ হবে। বিশেষ করে পাট ও তুলার সংমিশ্রণে কম খরচে সুতা, কাপড় তৈরি পোশাক, যেমন ড্যানিম প্যান্ট, জ্যাকেট, শার্টসহ প্রায় ১০৭ রকমের পাটপণ্য তৈরি করে বিক্রি করা যাবে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানায়। তারা আরো এই কারখানা থেকে বছরে প্রায় চার লাখ ৩২ হাজার ডজন ড্যানিম প্যান্ট তৈরি করে বিদেশে রফতানি করা যাবে। এছাড়া দুই কোটি ১৩ লাখ ৪০ হাজার গজ ড্যানিম ও অন্যান্য কাপড় উৎপাদন করা সম্ভব হবে। যা দেশের পোশাক কারখানায় কাপড় সরবরাহ করা যাবে।

বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয় সূত্রে আরো জানায়,প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০১৪ সালের ১২ অক্টোবর বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয় পরিদর্শণ কালে বিজেএমসিকে নিজের পায়ে দাঁড়ানোর নির্দেশ দেন। তার ফলশ্রুতিতে বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে নিয়োজিত বস্ত্র ও পাট প্রতিমন্ত্রীর মীর্জা আজম এমপি ২০১৬ সালের ২১ আগস্ট পাটপণ্যবহুমুখী উৎপাদনের জন্য পৃথক ইউনিট স্থাপনের নির্দেশনা দেন।
এ বিষয়ে বস্ত্র ও পাট প্রতিমন্ত্রী মির্জা আজম এমপি মিল স্থাপনে তার প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে তিনি বলেন, যেহেতু জামালপুর নদী ভাঙ্গন বন্যা কবলিত অতি দরিদ্র জেলা। শুধু তাই নয় বেকারত্বেও হার অনেক বেশী। সেই জন্য বাংলাদেশের উন্নয়নের প্রতীক, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা তার চিন্তা চেতনা থেকে জামালপুর দরিদ্র জেলাকে উন্নত জেলার রূপান্তর করতে বিভিন্ন কারখানা স্থাপন করে কর্মসংস্থান সৃষ্টি করে বেকারত্ব দূর করতে হবে। মির্জা আজম আরো বলেন, এই জুট মিলটি স্থাপিত হলে প্রকল্প এলাকার অন্তত তিন হাজার লোকের প্রত্যক্ষ এবং পরোক্ষ ভাবে চাকরির সুযোগ সৃষ্টি হবে। প্রচুর বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনের পাশাপাশি দেশীয় তৈরি পোশাক শিল্পকে সাশ্রয়ী মূল্যে সুতা ও কাপড় সরবরাহ করে তিন স্তরের জিএসপি সুবিধা অর্জন করা সম্ভব হবে। তা’ছাড়া কাঁচামালের সহজলভ্য, এমনকি দারিদ্র্যের হার কমানোর জন্র কর্মসংস্থানের সৃষ্টির জন্য কারখানার স্থান নির্ধারণ করা হয়েছে। ফলে বহুমুখী পাটপণ্য উৎপাদন ও রফতানি করে জাতীয় অর্থনীতিতে প্রকল্পটি সহায়ক ভূমিকা পালন করবে। অপরদিকে পরিবেশবান্ধব হওয়ায় বিশ্ব জুড়ে পাটের বহুমাত্রিক ব্যবহার বাড়বে। পাটের বাণিজ্যিক সম্ভাবনাকে নানামুখী উদ্যোগ কাজে লাগিয়ে দেশকে সমৃদ্ধশালী করে গড়ে তোলতে হবে। তারই ধারবাহ্যিকতায় জামালপুরের মাদারগঞ্জ উপজেলায় স্থাপন করা হচ্ছে পাটের বিশেষায়িত টেক্সটাইল কারখানা।