| |

প্রধানমন্ত্রীর অনুদান পেয়েও চিকিৎসা করাতে পারলেন না আওয়ামী লীগ নেতা হোসেন আলী ॥ মৃত্যুর কাছে হেরে গেলেন

শফিকুল ইসলাম মিন্টু,
বেহাত হয়ে যাওয়া প্রধানমন্ত্রীর অনুদানের টাকা ফেরত পেয়েও উন্নত চিকিৎসা নিতে পারলেন না অসুস্থ আওয়ামী লীগ নেতা হোসেন আলী। তার আগেই মৃত্যুর কাছে হেরে গেলেন তিনি। শনিবার(৭জুলাই) রাত ৭টা ৩০ মিনিটে তিনি গৌরীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন।
ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার ২নং গৌরীপুর ইউনিয়নের গজন্দর গ্রামের হোসেন আলী ওই ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি ছিলেন। চলতি বছরের ১৬ এপ্রিল প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ ও কল্যাণ হতবিল থেকে চিকিৎসার জন্য ৩০ হাজার টাকা অনুদান পায় অসুস্থ হোসেন আলী। পরে হোসেন আলীর স্ত্রী মিনারা বেগম ২৮ জুন জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে গিয়ে জানতে পারেন স্বামীর নামে বরাদ্দকৃত টাকার চেক কে বা কারা উত্তোলন করে নিয়ে গেছে। বিষয়টি নিয়ে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হলে প্রশাসনে তোলপাড় শুরু হয়। পরে ওই দিন দুপুরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ফারহানা করিমের নেতৃত্বে প্রশাসনের একটি প্রতিনিধি দল হোসেন আলীর বাড়িতে গিয়ে তার হাতে অনুদানের ৩০ হাজার টাকা তুলে দেন। এবং প্রতারক চেেক্রর সদস্য আমিনুল ইসলামকে আটক করা হয়। এদিকে প্রধানমন্ত্রীর অনুদানের টাকা হাতে পাওয়ার পর হোসেন আলীর পরিবার তার উন্নত চিকিৎসার প্রস্তুতি নিচ্ছিলো। কিন্তু গত শনিবার সন্ধ্যায় হোসেন আলী বুকে ব্যাথা ও শ্বাসকষ্ট অনুভব করলে পরিবারের লোকজন তাকে দ্রুত উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়ে যায়। পরে ৭টা ৩০ মিনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় হোসেন আলী মৃত্যুবরণ করেন। রোববার সকাল ১০টায় নিজ গ্রামে জানাযা শেষে তাকে পারিবারিক গোরস্থানে দাফন করা হয়। তার মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন স্থানীয় সংসদ সদস্য বীরমুক্তিযোদ্ধা নাজিম উদ্দিন আহমেদ।
হোসেন আলীর ছেলে মোশারফ হোসেন বলেন, প্রধানমন্ত্রীর অনুদানের টাকা হাতে পাওয়ার পর আমরা বাবার উন্নত চিকিৎসার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিলাম। কিন্তু এরই মধ্যে বাবা আমাদের ছেড়ে চলে গেলেন। আমরা অভাবী মানুষ। আমাদের পাশে দাড়ানো ও সহযোগিতার জন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে আকুতি জানাচ্ছি।