| |

আব্দুর রজ্জোক আর নইে।

শরেপুর থকেে আলমগীর: শরেপুর জলোর প্রবীণ সাংবাদকি ও সাপ্তাহকি শরেপুররে সম্পাদক এবং জলো বএিনপরি সাবকে সভাপতি আব্দুর রজ্জোক (৮৪) আর নইে। তনিি গতকাল মঙ্গলবার বলো ৩ টায় র্বাধক্য জনতি কারণে রঘুনাথ বাজারস্থ নজি বাসভবনে ইন্তকোল করনে । (ইন্নালল্লিাহে ওয়া ইন্না ইলাহি রাজউিন)। মরহুমরে একমাত্র সন্তান কাকন রজো এনটভি’ির শরেপুর জলো প্রতনিধিি ও সাপ্তাহকি শরেপুররে ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক।তাকে রাত সাড়ে আট টায় শরেপুর তরো বাজার মাদ্রাসা প্রাঙ্গনে ও রাত দশটায় পাকুরয়িা খামারপাড়া নজি গ্রামে দ্বতিীয় নামাজে জানাজা শষেে পারবিারকি কবরস্থানে তাঁকে দাফন করা হয়। মরহুম আব্দুর রজ্জোকরে মৃত্যুতে জলো বএিনপরি আহবায়ক ও সাবকে এমপি মাহমুদুল হক রুবলে, যুগ্ম আহবায়ক সাবকে পৌরপতি আব্দুর রজ্জোক আশষি সহ জলো, থানা ও অঙ্গসংগঠনরে সকলস্তররে নতোর্কমীরা শোক প্রকাশ করছেনে এবং শোক সন্তপ্ত পরবিাররে প্রতি গভীর সমবদেনা জ্ঞাপন করনে। আরও শোক জানয়িছেনে শরেপুর প্রসে ক্লাবরে সভাপতি এডভোকটে রফকিুল ইসলাম আধার, সাধারণ সম্পাদক সাবহিা জামান শাপলা, সাংগঠনকি সম্পাদক মোঃ আলমগীর হোসনে প্রমূখ।
“আব্দুর রজ্জোক এর সংক্ষপ্তি জীবনী” সাংবাদকি আব্দুর রজ্জোক ১৯৩৬ সালরে ২ র্মাচ শরেপুর সদর উপজলোর পাকুরয়িা ইউনয়িনরে খামারপাড়া গ্রামে জন্ম গ্রহণ করনে। বাবা- বন্দে আলী, মা- আদুরী বগেম। স্ত্রী- জাহানারা রজ্জোক ও একমাত্র সন্তান কাকন রজো, পশোয় সাংবাদকি। জাহানারা রজ্জোক ১৯৮৯ সালে জাতীয়তাবাদী শরেপুর মহলিা দলরে সভানত্রেী ছলিনে।আব্দুর রজ্জোক ১৯৫৪ সালে জি কে পি এম স্কুল থকেে ম্যাট্রকিুলশেন পাশ করনে। পরে ময়মনসংিহ আনন্দমোহন কলজে, জামালপুর আশকে মাহমুদ কলজে এবং শরেপুর সরকারী কলজেে অধ্যয়ন করনে। শক্ষিা জীবন শষেে “রজ্জোক ষ্টোর” নামে একটি ব্যবসা প্রতষ্ঠিান চালু করনে। তনিি ১৯৫২ সালে ভাষা আন্দোলন, ১৯৫৪ সালে যুক্তফ্রন্ট, ১৯৬৯ সালে গণ-অভ্যুত্থান এবং ১৯৭১ সালে স্বাধীনতা আন্দোলনরে সঙ্গে জড়তি ছলিনে। আব্দুর রজ্জোকরে সাংবাদকিতা জীবন শুরু ১৯৭৯ সালে দনৈকি কৃষাণ পত্রকিার মাধ্যম।ে এরপর ১৯৮৬ সালরে জুন মাস থকেে তনিি শরেপুর জলোর প্রথম সংবাদপত্র “সাপ্তাহকি শরেপুর” সম্পাদনা করে আসছনে। এ পত্রকিা প্রকাশ করার প্ররেণা জুগয়িছেলিনে সাবকে মন্ত্রী, কলামষ্টি মরহুম খোন্দকার আব্দুল হামদি। ১৯৯২ সালে বাংলাদশে প্রসে ইনস্টটিউিট থকেে আঞ্চলকি সংবাদ পত্ররে যে ১৩ জন সম্পাদক প্রশক্ষিণ নয়িে ছলিনে তাদরে মধ্যে তনিি অন্যতম। আব্দুর রজ্জোক একাধারে সাংবাদকি, কবি ও উপন্যাসকি। তার প্রথম উপন্যাস “চলার পথ”ে। এরপর প্রকাশতি হয় “বড় একা একা লাগ”ে ও “শষে দখো” নামে আরো দুটি উপন্যাস। তার প্রকাশতি কাব্যগ্রন্থ “আমাকে বলতে দাও” ও “প্রতদিনিরে শব্দ”। তনিি ২০০৫ সালে ভাষা সনৈকি হসিবেে রাষ্ট্রীয় সম্মানে ভূষতি হন।