| |

ধোবাউড়ায় বিনা বেতনে শিক্ষার আলো ছড়াচ্ছে কংশ পাড়ের পোড়াকান্দুলিয়া কলেজ

আবুল হাশেম,ধেবাউড়া(ময়মনসিংহ) থেকে ঃ
ধোবাউড়া উপজেলা সদর থেকে ১০ কিলোমিটার দূরে কংশ নদের পাড়ে অবস্থিত পোড়াকান্দুলিয়া কলেজটি অঝোঁপাড়া গাঁয়ে শিক্ষার আলো ছড়াচ্ছে।পোড়াকান্দুলিয়া থেকে ধোবাউড়ায় আসতে গাড়ি ভাড়া ৬০ টাকা। সময় ব্যয় করতে হয় প্রায় ১ ঘন্টা। পোড়াকান্দুলিয়ার মত অঝোঁপাড়া দরিদ্র এলাকা থেকে ছাত্রছাত্রীদের পক্ষে পড়াশোনা করা কষ্টকরই ছিল।তাই দীর্ঘদন ধরেই পোড়াকান্দুলিয়ায় একটি কলেজের অভাব চোখে পড়েছিল সাধারন মানুষ ও জ্ঞান পিপাসু ছাত্রছাত্রীদের মাঝে। তারই ফলশ্রুতিতে অবশেষে ২০১১ সালে কংশ নদের পাড়ে সাবেক এম.এন.এ স্বর্গীয় গৌরাঙ্গ চন্দ্র সাহার ভূমিতে প্রতিষ্ঠিত হল পোড়াকান্দুলিয়া কলেজ। প্রতিষ্ঠার পর থেকে বিনা বেতনে পাঠদান করছেন শিক্ষকগণ।কলেজটি প্রতিষ্ঠায় সামনে থেকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন কলেজের অধ্যক্ষ শংকর কুমার সাহা।প্রতিবছরই কলেজে ভাল ফলাফল করেছে ছাত্রছাত্রীরা।কলেজ প্রতিষ্ঠার পর থেকে বিভিন্নভাবে সহযোগিতা করেছেন প্রয়াত সমাজ কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী অ্যাড.প্রমোদ মানকিন।বর্তমানে সেই সহযেগিতার ধারা অব্যাহত রেখেছেন প্রয়াত সমাজ কল্যাণ প্রতিমন্ত্রীর ছেলে হালুয়াঘাট ধোবাউড়া আসনের সংসদ সদস্য জুয়েল আরেং। কলেজটির গর্ভনিং বডির সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন এমপি জুয়েল আরেং এর বোন রুবি আরেং। ইতামধ্যে সভাপতির প্রচেষ্টায় ধোবাউড়া সদর ইউনিয়ন যুবলীগের আহবায়ক জালাল উদ্দিনের সহযোগিতায় এমপি’র পক্ষ থেকে কলেজের ছাত্রছাত্রীদের যাওয়া আসার সুবধার্থে একটি রাস্তা বরাদ্দ করা হয়েছে। সংসদ সদস্য জুয়েল আরেং এর সহযোগিতা ও প্রচেষ্টায় কলেজটি শীগ্রই এমপিওভুক্ত হবে এমনটাই প্রত্যাশা এলাকাবাসীর।