| |

ইসলামপুরে কেন্দ্র পরবির্তনের দাবীতে বিক্ষোভ মিছিল সড়ক অবরোধ

ইসলামপুর প্রতিনিধিঃ ইসলামপুরে কেন্দ্র পরবির্তনের দাবীতে ব্যস্ততম সড়ক অবরোধ করে রাখেন ইসলামপুর বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের এইচএসসি নির্বাচনী পরীক্ষার্থীরা। অবরোধকারীরা জানান, ২০১০থেকে ২০১৪সাল পর্যন্ত সামাদ পারভেজ মেমোরিয়াল কলেজ কেন্দ্রের পরীক্ষা দেওয়ার সময় উক্ত কলেজের শিক্ষকরা ইচ্ছাকৃতভাবে ছাত্রদের উত্তরপত্র কেটে দিয়ে অকৃতকার্য করানো হয়।সেই দৃষ্টতায় অভিযোগ তুলে পরীক্ষার্থীরা উক্ত কলেজে পরীক্ষা কেন্দ্র বাতিলের দাবীতে কয়েকদিন যাবত আন্দোলন করে যাচ্ছি। তারা আরো জানান,, ইসলামপুর উপজেলায় উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা কেন্দ্র ২টি। একটি ইসলামপুর কলেজ অন্যটি ইসলামপুর এম.এ সামাদ পারভেজ মহিলা কলেজ। ইসলামপুর এম.এ সামাদ পারভেজ মহিলা কলেজের কতিপয় শিক্ষক ২০১০ সালের উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় ইসলামপুর কলেজের পরীক্ষার্থীদের উত্তরপত্র কেটে দেওয়াসহ ব্যবহারিক পরীক্ষায় নাম্বার সীট পরিবর্তন করে ইসলামপুর কলেজের পরীক্ষার্থীদের ফলাফল বিপর্যয় ঘটালে কিছু অভিভাবকের আবেদনের প্রেক্ষিতে ঢাকা বোর্ডের তৎকালীন চেয়ারম্যান ঘটনার তদন্ত করে দোষী চার জন শিক্ষকের বিরুদ্ধে শাস্তি মূলক ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশসহ পরীক্ষা কেন্দ্রটি বাতিল করেন। সে প্রেক্ষিতে কলেজ গভর্নিং বডি ঐ সমস্ত দোষী শিক্ষকদের সাময়িক বরখাস্ত করেন। ২০১১ সালের পরীক্ষায় জাতীয় সংসদ সদস্য আলহাজ ফরিদুল হক খান দুলালের উদ্যোগে দোষী শিক্ষকদের শাস্তি বজায় রেখে কেন্দ্রটি ভেন্যু কেন্দ্র হিসাবে পুনঃস্থাপন করা হয়। ২০১২ সালের পরীক্ষায় উক্ত কেন্দ্র পূর্ণাঙ্গ পরীক্ষা কেন্দ্র হিসাবে গণ্য হওয়ার পর আবারও ইসলামপুর কলেজের পরীক্ষার্থীদের সেখানে পরীক্ষা দিতে হয়। গত ২০১৪ সালের উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় দোষী শিক্ষকগণের শাস্তি মওকুফ করে পুনরায় পরীক্ষার দায়িত্ব পালনের সুযোগ পাওয়ায় তারা প্রতিহিংসা চরিতার্থ করতে পূর্বের ভূমিকায় অবতীর্ণ হয় বলে ছাত্র/ছাত্রীদের অভিযোগ।
গতকাল বুধবার কলেজ মোড়ে বর্তমানে এইসএসসি নির্বাচনী পরীক্ষার্থীরা পরীক্ষা বাতিল করে আন্দোলন করেন। কেন্দ্র বাতিল না হওয়া পর্যন্ত তারা কোন পরীক্ষা ও ক্লাসে অংশগ্রহণ করবে না। ইসলামপুর থানার ওসি দ্বীন-ই-আলম পরীক্ষার্থীদেরকে রাস্তা অবরোধ তুলে নেওয়ার জন্য তাদেরকে অনুরোধ করেন।