| |

বিদেশী পর্যটকদের আকৃষ্ট করতে পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে : মেনন

এনএনবিঃ বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন বলেছেন, বাংলাদেশে বিদেশী পর্যটকদের আকৃষ্ট করতে স্বল্প, মধ্যম এবং দীর্ঘ মেয়াদী পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে ।
মন্ত্রী গতকাল ঢাকায় রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় ঢাকায় কর্মরত কয়েকটি দেশের কূটনীতিকদের সাথে মতবিনিময়কালে এ কথা বলেন।
বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয় আয়োজিত অনুষ্ঠানে পররাষ্ট্র মন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলী, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সচিব খোরশেদ আলম চৌধুরী এবং বাংলাদেশ পর্যটন বোর্ডের সিইও আখতারুজ্জামান খান কবির বক্তৃতা করেন ।
এই অনুষ্ঠানে বাংলাদেশে চীন, ভিয়েতনাম, মায়ানমার, নেপাল ও ভুটানের রাষ্ট্রদূত ও হাইকমিশনার এবং ভারত, রিপাবলিক অব কোরিয়া এবং থাইল্যান্ড দূতাবাসের প্রতিনিধিগণ উপস্থিত ছিলেন।
রাশেদ খান মেনন বলেন, পর্যটন খাতের বিকাশের লক্ষে জাতিসংঘের বিশ্ব পর্যটন সংস্থার সহায়তায় বাংলাদেশ প্রথমবারের মত ঢাকায় আন্তর্জাতিক বুদ্ধিস্ট ট্যুরিজম সার্কিট কনফারেন্সের আয়োজন করছে। দেশের ঐতিহাসিক বৌদ্ধ স্থাপনাসমূহের টেকসই উন্নয়ন ও প্রাচীন ঐতিহ্যকে ঘিরে পর্যটন বিকাশে টেকসই কর্মপরিকল্পনা প্রণয়ন ও বাস্তবায়নের কৌশল নির্ধারণ সম্মেলনের অন্যতম লক্ষ্য ।
দেশের পর্যটন শিল্প বিকাশে আগামী অক্টোবর মাসে ঢাকায় অনুষ্ঠিত ইন্টারন্যাশনাল বুদ্ধিস্ট ট্যুরিস্ট সার্কিট সম্মেলনে আমন্ত্রিত দেশের পর্যটন মন্ত্রী, পদস্থ কর্মকর্তা এবং পর্যটন বিশেষজ্ঞদের উপস্থিতি নিশ্চিত করাসহ সম্মেলন ফলপ্রসূ করার বিষয়া আলোচনায় স্থান পায় ।
মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন বলেন, দেশের পর্যটন খাতের বিকাশে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০১৬ সালকে পর্যটন বর্ষ হিসেবে ঘোষণা করেছেন। এরই ধারাবাহিকতায় জাতিসংঘ বিশ্ব পর্যটন সংস্থার মহাসচিব তালেব রিফাইয়ের সাথে একাধিক বৈঠকে বাংলাদেশের পর্যটন খাতকে এগিয়ে নেয়ার ক্ষেত্রে সহযোগিতার আশ্বাস পাওয়া গেছে। এরই অংশ হিসেবে সংস্থাটির সহযোগিতায় আগামী মাসে আন্তর্জাতিক এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ।
কূটনীতিকগণ মতবিনিময়ে তাদের স্ব-স্ব দেশের অংশ গ্রহনসহ বাংলাদেশের পর্যটন শিল্পকে এগিয়ে নিতে সম্ভাব্য সব ধরণের সহযোগিতা প্রদানের আশ্বাস দেন ।