| |

হালুয়াঘাটে কালবাজারিতে পাচারের সময় আবারও ৮০ বস্তা চাল আটক

জোটন চন্দ্র ঘোষ,হালুয়াঘাট : ময়মনসিংহের হালুয়াঘাটে কালবাজারিতে পাচারের সময় আবারও ৮০ বস্তা ভিজিএফ ও ভিজিডির চাল আটক করেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাকির হোসেন ও থানার অফিসার ইনচার্জ জাহাঙ্গীর আলম তালুকদার। ২০ আগষ্ট দুপুরে স্বদেশী ইউনিয়ন পরিষদের সন্মুখের নূরুমুন্সীর ঘর থেকে চালগুলি আটক করা হয়। গোপন সংবাদের ভিত্তিত্বে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাকির হোসেন ও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম তালুকদার ঘটনাস্থল পরির্দশন করে চালগুলি উদ্বার করে থানায় নিয়ে আসেন।
স্থানীয়রা নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সত্বে সাংবাদিকদের জানান, স্বদেশী ইউনিয়ন পরিষদের কতিপয় ইউপি সদস্য নাশুল্য গ্রামের মঙ্গল এর পুত্র উপজেলার চিহ্নিত কালোবাজারি মজিবরের নিকট চালগুলি বিক্রি করেন। চালগুলি কালবাজারিতে পাচারের উদেশ্যে নুরুমুন্সীর ঘরে সংরক্ষণের সময় গোপন সংবাদের ভিত্তিত্বে প্রশাসনের কর্মকর্তাগণ উপস্থিত হয়ে চালগুলি উদ্বার করেন। ত্রিশ কেজি ওজনের ৩৫ বস্তা চালে খাদ্য অধিদপ্তরের সরকারি সীলমহর রয়েছে। অন্যান্য প্রায় ৫০ কেজি ওজনের ৪৫ বস্তা চালের বস্তা পরিবর্তন করে প্লাস্টিকের বস্তায় সংরক্ষণ করেন।
এ বিষয়ে মজিবরের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তার বক্তব্য পাওয়া যায়নি। স্বদেশী ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান আবু নাসের বলেন, উক্ত চালগুলি বিভিন্ন সুবিধা ভোগীদের নিকট থেকে মজিবর ক্রয় করেছেন। পরিষদ থেকে কোন চাল বিক্রয় করা হয়নি বলে জানান।
এ বিষয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম তালুকদার বলেন, খাদ্য অধিদপ্তরের সীলমহর যুক্ত আটককৃত চাল গুলি থানায় রয়েছে। এ ঘটনায় মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে জানান।
উল্লেখ যে, গত ১৫ আগষ্ট দুপুরে পৌরশহরের টানাব্রীজ এর উপর থেকে মালিক বিহীন ১৪০ বস্তা ভিজিএফ চাল কালবাজারিতে পাচারের সময় থানা পুলিশ আটক করেন।