| |

ফুলবাড়ীয়ায় নওশের বাজারে পুড়ে গেছে ৬ টি দোকানঘর

মো: আব্দুস ছাত্তার, ফুলবাড়িয়া : ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া উপজেলার নাওগাও ইউনিয়নের বাদীহাটী নওশের বাজারে বৈদ্যুৎতিক সর্টসার্টিকে ৬ দোকানঘর পুড়ে প্রায় ২৩ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে জানা গেছে। রবিবার ভোর রাত পৌনে ৪ টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। ব্যাপক এ ক্ষয়ক্ষতির জন্য স্থানীয়রা পল্লী বিদ্যুৎ বিভাগকে দায়ী করেছেন।

স্থানীয়রা জানান, বাজারে আগুনের লেলিহান দেখে মসজিদের মাইকে অবগত করালে আশপাশের লোকজন ছুটাছুটি করে ঘটনাস্থলে আসলেও বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন না করার কারণে প্রত্যক্ষদর্শীদের কিছুই করার ছিল না, তারা ছিলেন নীরব দর্শক। তারা আরও জানান, বাজারের কাছ দিয়ে বয়ে গেছে বানার নদী, পর্যাপ্ত পানি ছিল নদীতে আমাদের কাছে যা ছিল তাই নিয়ে প্রস্তুত ছিলাম আগুন নিভানোর জন্য।

স্থানীয় জসিম উদ্দিন মন্টু সহ অন্যরা জানান, পল্লী বিদ্যুৎ এর অভিযোগ নম্বর ০১৭৬৯-৪০১৫০১ অন্তত ৫০ জন মানুষ ৩০০ বার ফোন দিছে কিন্ত কেউ রিসিভ করে নি। আধ ঘন্টা চেষ্টার পর মোটরসাইকেলে অভিযোগ কেন্দ্রে খবর দেয়ার পরও লাইন বন্ধ হয়নি। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হলে তারা লাইন বন্ধ করেন। কিন্তু এতক্ষনে পুড়ে গেছে শফিকুল ইসলামের ওয়ার্কসপ, হাবিবুল্লাহর কাপড় ও টেইলাসের দোকান, আজিজুলের হোটেল, ইসলামের মনোহরি দোকান, জসিম উদ্দিনের গুডাউন, মুখলেছের মনোহরি দোকান। এতে প্রায় ২৩ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

কেশরগঞ্জ বাজার পল্লী বিদ্যুৎ অভিযোগ কেন্দ্রের লাইনম্যান আঃ বাতেন জানান, গভীর রাতে ঘুমে থাকার কারণে ফোন রিসিভ করতে কিছুটা বিলম্ব হয়েছে। আমি অবগত হওয়া মাত্র আছিম সাব-স্টেশনে ফোন করে ঐ এলাকার বিদ্যুৎ সংযোগ বন্ধ করে দেয়া হয়।

ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার নূরুল ইসলাম জানান, অগ্নিকান্ডে ৬টি দোকান পুড়ে গেছে।

পল্লী বিদ্যুৎ ফুলবাড়ীয়া জোনাল অফিসের ডিজিএম অনিতা বর্ধন বলেন, বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।