| |

ফুলবাড়িয়া উপজেলা ও পুটিজানা পরিষদ পরিদর্শনে সন্তোষ : স্কুলে অসন্তোষ

মো: আব্দুস ছাত্তার, ফুলবাড়িয়া : গতকাল মঙ্গলবার ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া উপজেলা পরিষদ, পুটিজানা ইউনিয়ন পরিষদ, ডিজিটাল সেন্টার ও শিবগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয় পরিদর্শন করেছেন ময়মনসিংহ বিভাগের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার মো: নুরুল আলম।

বেলা সাড়ে ১১ টার দিকে পুটিজানা ইউনিয়ন পরিষদ চত্বরে পৌঁছালে পরিষদের পক্ষ থেকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান ইউপি চেয়ারম্যান মো: ময়েজ উদ্দিন তরফদার। এরপর এলজিএসপি’র বরাদ্দে নির্মিত মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ভবন কাজ পরিদর্শন শেষে তাতে সন্তোষ প্রকাশ করে বলেন এ সকল বরাদ্দ দিয়ে এত ভালো কাজ খুব বেশি একটা হয় না। চেয়ারম্যানের সাহসী উদ্যোগ কে স্বাগত জানান তিনি।

ইউনিয়ন পরিষদের বিভিন্ন নথিপত্র দেখে তাতেও সন্তোষ প্রকাশ করেন। এরপর ইউপি চেয়ারম্যান, ওয়ার্ড সদস্য, সংরক্ষিত সদস্যদের সাথে মত বিনিময় করেন।

শিবগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয় পরিদর্শনকালে প্রথমে ১০ম শ্রেণির ক্লাশে প্রবেশ করেন শিক্ষার্থীদের কাছে জানতে চান- আমি স্কুলে যাই- ইংরেজি কর, খানিকটা পরে উপস্থিত একজন উত্তরটা দিলেও ‘আমি স্কুলে যাই না’ এটাতে আটকে যায় তারা। সাধারণ জ্ঞানের প্রশ্নেও থমকে যায় শিক্ষার্থীরা।

ধারাবাহিকতায় ৯ম শ্রেণিতে গেলে প্রায় অভিন্ন প্রশ্নে আটকে যায় শিক্ষার্থীরা, হতাশ করে পরিদর্শকদের। ৮ম শ্রেণির ক্লাশে গিয়ে দেখা যায় তথ্য প্রযুক্তির ক্লাশ হচ্ছে। সেখানকার শিক্ষার্থিরা হার্ডওয়ার ও সফটওয়ার বিষয়ে সন্তোষজনক জবাব দিয়েছে কিন্তু সমসাময়িক বিষয়ে তেমন সাহসি ভূমিকা রাখতে পারেনি।

পরিদর্শক অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার মো: নুরুল আলম প্রতিক্রিয়ায় বলেন, স্কুলের বেসিক দূর্বল। শিক্ষার গুনগত মান উন্নয়নে ম্যানেজিং কমিটি ও শিক্ষকদের উদ্যোগি হবার পরামর্শও দেন তিনি।

সমসাময়িক বিষয়ের মধ্যে ছিল- বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী, রাষ্ট্রপতি ও বিরোধী দলীয় নেত্রীর নাম ও বাড়ী, বাংলাদেশের বিভাগ ইত্যাদি। পরিদর্শক অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার মো: নুরুল আলম এক পর্যায়ে বলেন, আমি ১০ম শ্রেণির শিক্ষার্থীকে ক্লাশ টু থ্রির প্রশ্ন করছি, সেটারও জবাব পাওয়া যাচ্ছে না।

বিকালে ফুলবাড়িয়া উপজেলা পরিষদ পরিদর্শন করেন। কর্মরত অফিসারদের সাথে মত বিনিময়ে মিলিত হন। সৌজন্য সাক্ষাত করেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এড. আজিজুর রহমান।

যাওয়ার সময় প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে বেঞ্চ বিতরণ উদ্বোধন করেন অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার মো: নুরুল আলম। পরিদর্শনকালে তার অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনারের সিএ-২ রুবিনা আক্তার উপস্থিত ছিলেন।