| |

ভালুকায় অসহায় পরিবারের জমি দখলের চেষ্টা পৈত্রিক সম্পত্তি থেকে গাছ কাটতে বাঁধা

নিজস্ব সংবাদদাতা,: ভালুকা উপজেলার নিঝুরী গ্রামের সূর্য্যকান্ত দে’র পৈত্রিক সূত্রে প্রাপ্য জমি থেকে গাছ ও বাঁশ কাটতে গেলে প্রতিপক্ষরা তাতে বাঁধা দেয় এবং ১৩ শতাংশ দখলের চেষ্টা চালায়। এ নিয়ে উভয় পক্ষের মাঝে বাগবিতন্ডা ও হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এ ব্যাপারে ভালুকা মডেল থানায় সাধারণ ডায়রী করা হয়েছে।
ভূক্তভোগী পরিবার ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ওই গ্রামের সূর্য্যকান্ত দে পৈত্রিক সূত্রে প্রাপ্ত হয়ে বরাদি মৌজার ১২ নং দাগে ১৩ শতাংশ জমিতে গাছপালা রোপন করে দীর্ঘদিন ধরে ভোগ দখলে আছেন। জমির মূল্য বৃদ্ধি পাওয়ায় ওই জমির লোভে পড়েন প্রতিবেশি অমূল্য চন্দ্রের এবং প্রকৃত জমির মালিক সূর্য্যকান্ত দের বিরুদ্ধে আদলতে মিথ্যে মামলা দায়ের করেন। আদালতে মামলাটি দীর্ঘদিন চলার পর সূর্য্যকান্ত দের পক্ষে রায় প্রদান করা হয়। স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান সালিশের মধ্যে উভয় পক্ষের লোকজনদের ডেকে আপোষ মিমাংশা পূর্বক সূর্য্যকান্ত দের পক্ষেই রায় প্রধান করা হয়। গত শুক্রবার ওই জমি থেকে সূর্য্যকান্ত বাঁশ ও গাছ কাটতে গেলে ইউনিয়ন পরিষদ ও আদালতের নির্দেশনা উপেক্ষা করে অমূল্য চন্দ্র তাতে বাঁধা দেন এবং জমি দখলের চেষ্টা চালায়। এ নিয়ে উভয় পক্ষের মাঝে কথা কাটাকাটি ও হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। জমির মালিক সূর্য্যকান্ত জানান, প্রতিপক্ষ অমূল্য চন্দ্রের লোকজন যেকোন সময় আমার ও আমার পরিবারের লোকজনের উপর হামলাসহ বড় ধরণের ক্ষতি সাধন করতে পারে। প্রতিপক্ষ অমূল্য চন্দ্র জানান, আমার জমি থেকে গাছ কাটতে গেলে তাতে বাঁধা দেয়া হয় এবং আমাকে মারধর করা হয়।