| |

চলন্ত ট্রেন থেকে ঝাঁপিয়ে পড়ে ছিনতাইকারীকে ধরে ফেললো এক দম্পত্তি

গৌরীপুর সংবাদদাতা ॥
ময়মনসিংহের গৌরীপুরে চলন্ত ট্রেনে এক মহিলার গলা থেকে চেইন ছিনতাই করে পালানোর সময় ওই দম্পতি ট্রেন থেকে ঝাঁপিয়ে পড়ে এক ছিনতাইকারীকে ধরে পুলিশে সোর্পদ করেছ। ওই ছিলতাইকারী হচ্ছে মোঃ কাউসার (২৮)। বুধবার ময়মনসিংহ থেকে ছেড়ে আসা ভৈরবগামী ঈশা খা এক্সপ্রেস ট্রেনটি গৌরীপুর স্টেশন ছেড়ে বাসস্ট্যান্ড এলাকা অতিক্রম করার সময় এই ঘটনা ঘটে। ছিনতাইকারী কাউসার কিশোরগঞ্জের ভৈরব বাসস্ট্যান্ড মহল্লার রব মিয়ার ছেলে। আর ওই দম্পতি হলেন-আশিষ দেবনাথ ও সুপ্রিয়া দেবনাথ। তাদের বাড়ি ময়মনসিংহরে ঈশ্বরগঞ্জে।
স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বুধবার আশিষ ও সুপ্রিয়া দম্পতি নেত্রকোনার জারিয়া থেকে ট্রেনে ঈশ্বরগঞ্জ যাওয়ার উদ্দেশ্যে গৌরীপুর স্টেশনে ট্রেন বদল করে ভৈরবগামী ঈঁশা খা এক্সপ্রেস ট্রেনে উঠেন। ট্রেনটি গৌরীপুর স্টেশন ত্যাগ করার কিছুক্ষণ পর যাত্রীবেশী ছিনতাইকারী কাউসার সুপ্রিয়ার গলায় থাকা স্বর্ণের চেইন টান দিয়ে ছিঁড়ে চলন্ত ট্রেন থেকে নেমে পড়ে। এসময় সুপ্রিয়াও দ্রুত চলন্ত ট্রেন থেকে ঝাঁপ দিয়ে ছিনতাইকারীর শার্টের কলার ধরে ফেললে দুজনের ধস্তাধস্তি শুরু হয়। এসময় আশিষও দ্রুত চলন্ত ট্রেন থেকে ঝাঁপিয়ে পড়ে ছিনতাইকারীকে ধাওয়া করলে সে পৌর বাসস্ট্যান্ড এলাকায় এসে যাত্রীবাহী বাসে উঠে পড়ে। পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় ছিনতাইকারীকে বাস থেকে ধরে এনে পুলিশে সোর্পদ করা হয়।
বুধবার রাতে আশিষ দেবনাথ বলেন, ট্রেন থেকে ঝাঁপ দিয়ে ছিনতাইকারীকে ধরতে পারলেও স্ত্রীর স্বর্ণের চেইন উদ্ধার করতে পারিনি। উল্টো দুজনেই আহত হয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছে। গৌরীপুর থানার ওসি স্যার ময়মনসিংহ রেলওয়ে থানায় মামলা করতে বলেছিলো। কিন্তু ছিনতাইকারীর পরিবার চেইনের পরিবর্তে ১১ হাজার টাকা দিয়েছে, তাই মামলা করে ঝামেলায় জড়াতে চাইনি।
গৌরীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবদুল্লাহ আল মামুন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, কাউসারকে আটক করার পর জানতে পারি ছিনতাইয়ের ঘটনা রেলওয়ে সীমনায় ঘটেছে। তাই ক্ষতিগ্রস্থ দম্পত্তিকে মামলার পরামর্শ দিয়ে আটককৃত কাউসারকে বুধবার রাতে ময়মনসিংহ রেলওয়ে থানায় প্রেরণ করা হয়েছে। তবে কেনো তারা মামলা করেনি সে বিষয়ে বলতে পারছিনা।###