| |

গৌরীপুরে তুচ্ছ ঘটনায় সংঘর্ষ ॥ আহত-১০

গৌরীপুর সংবাদদাতা ॥ ময়মনসিংহের গৌরীপুর শহরের মধ্যবাজারে শনিবার (২১ নভেম্বর) রাতে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে ১০জন আহত হয়েছে। গুরুতর আহত ৫জনকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। শনিবার হাটের দিন থাকায় সংঘর্ষের ঘটনায় শহরে উত্তেজনা সৃষ্টি হলে আতঙ্কে ব্যবসায়ী, দোকানি জনতা ছুটাছুটি করতে থাকে।
প্রত্যক্ষদর্শী সূত্র জানায়, আওয়ামী লীগ নেতা সাবেক পৌর মেয়র সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থী মোঃ শফিকুল ইসলাম হবির চাচাতো ভাই মোঃ আশরাফুল আলম পৌর শহরের মধ্য বাজারে একটি মসজিদের ওয়াজ মাহফিলের সাহায্য উত্তোলন করতে গেলে কেন্দ্রীয় যুবলীগের সদস্য সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থী আবু কাউছার চৌধুরী রন্টির ছোট ভাই পৌর ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ফজলে রাব্বী চৌধুরী রুপু’র লোকজন বাঁধা দেয়। এ নিয়ে দু’গ্রুপের মাঝে বিরোধ নিষ্পত্তির জন্য আবু কাউছার চৌধুরী রন্টি’র অফিসে সালিশ বসে। সালিশে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে আবু কাউছার চৌধুরী রন্টি’র অফিসের টেবিলের কাঁচ ভেঙ্গে ফেলে। এ নিয়ে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়লে সংঘর্ষে কমপক্ষে ১০জন আহত হয়। গুরুত্বর আহত পৌর আওয়ামী লীগের কোষাধ্যক্ষ সুশান্ত সাহা প্রেমু(৩২), মোমিনপুরের আঃ মিয়ার পুত্র মোঃ হারুন মিয়া (২২), কলাবাগানের এমএ হাইয়ের পুত্র আঃ আহাদ রিগান (২৪), আবুল তালেব চৌধুরী রানা (৩৩), তারেক (৩৫) কে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেছে। গৌরীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আখতার মোর্শেদের নেতৃত্বে রন্টি’র অফিসে অবরুদ্ধ যুবলীগ নেতা আশরাফুল আলম ও ছাত্রলীগের জিল্লুর রহমানকে পুলিশ উদ্ধার করেছে। আবু কাউছার চৌধুরী রন্টি জানান, এটি নিছক একটি দূর্ঘটনা।