| |

কলমাকান্দায় হত্যার দায়ে ৫ ভাই-বোনের যাবজ্জীবন

সৌমিন খেলন : কলমাকান্দা উপজেলার পাঁচগাঁও গ্রামের মেসের আলীর ছেলে অখতার আলীকে (৩০) গুলি করে হত্যার দায়ে পাঁচ ভাই-বোনকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিয়েছে আদালত। একই সঙ্গে প্রত্যেককে ২০ হাজার টাকা জরিমানা ও জরিমানা অনাদায়ে আরও দুই বছর সশ্রম কারাদন্ডাদেশ দেওয়া হয়। একই মামলায় খুনের দায়ে অভিযুক্ত অন্য ১৩ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগ সন্দেহাতীত প্রমাণিত না হওয়ায় প্রত্যেককেই নির্দোষ সাবস্ত্য হয়ে বেকসুর খালাস পান। মঙ্গলবার (২৪ নভেম্বর) দুপুর ১২টার দিকে রায় ঘোষণা করেন, নেত্রকোনার অতিরিক্ত জেলা ও দাযরা জজ আদালতের বিচারক মো. আব্দুল হামিদ। দন্ডপ্রাপ্ত দন্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন- নাটোর জেলার শিবপুর গ্রামের বড়াই গ্রামের মৃত আ. মন্নাফের ছেলে-মেয়ে তাহমিনা ওরফে তাকমা, দুলাল, হায়দার, চাঁন মিয়া ও রায়হান। এদের মধ্যে তাহমিনা, দুলাল ও হায়দার পলাতক রয়েছেন। রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী মো. আজম খান (এ.পি.পি) স্বদেশ সংবাদকে জানান, আসামিরা ওই গ্রামের আ. ছালাম নামে এক আত্মীয়র বাড়িতে বেড়াতে আসে। আখতারদের সঙ্গে ছালামের জমি সংক্রান্ত বিরোধে তারাও জড়িয়ে পড়ে। এরপর, ১৯৯৮ সালের ২৫ নভেম্বর সকালের ঘটনা। সাজাপ্রাপ্তরা বাড়িতে ঢুকে আখতারকে জেরে দেশীয় বিভিন্ন অস্ত্রে আক্রমন চালিয়ে অবশেষে গুলি করে হত্যা করে। ভাই খুনের ঘটনায় আখতারের বোন অরুনা খাতুন বাদি হয়ে কলমাকান্দা থানায় মামলা করেন। পুলিশ তদন্ত শেষে ১৯৯৯ সালের (১২ এপ্রিল) আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেন। দীর্ঘশুনানি শেষে আদালতের বিজ্ঞ বিচারক ৮জন সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে মঙ্গলবার রায় ঘোষণা করেন। আসামী পক্ষে আইনজীবী ছিলেন, পীযূষ কুমার সাহা ও শামছুদ্দিন আহমেদ।