| |

সংখ্যাগরিষ্ঠ মুসলিম দেশ মিশরে আবার খুলল ইসরাইলি দূতাবাস

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ জেনারেল সিসি’র নেতৃত্বাধীন সেক্যুলার সরকারের অধীনে পরিচালিত মুসলিম দেশ মিশরে আবার খুলেছে ইসরাইলি দূতাবাস। নিরাপত্তাগত কারণে চার বছর বন্ধ থাকার পর ইহুদিবাদীরা কায়রোয় আবার তাদের দূতাবাস খুলল ।

ইসরাইলের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মহা-পরিচালক ডোরে গোল্ড এ উপলক্ষে বুধবার কায়রো সফর করেন। তিনি বলেন, মিশর সব সময় ইসরাইলের কাছে মধ্যপ্রাচ্যের সবচেয়ে বড় ও গুরুত্বপূর্ণ দেশ হিসেবে বিবেচিত হয়েছে। ইহুদিবাদী এ কর্মকর্তা আরো বলেন, তেলআবিব ও কায়রো তাদের প্রতি ‘অভিন্ন হুমকি’ প্রতিহত করতে যৌথভাবে কাজ করতে সম্মত হয়েছে ।

ইসরাইলের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এ উপলক্ষে এক বিবৃতিতে বলেছে, কায়রোতে ইসরাইলি দূতাবাস আবার চালু হওয়ার ঘটনায় ‘নতুনত্ব’ রয়েছে। কায়রোয় শিশু হত্যাকারী ইসরাইলের দূতাবাস আবার চালু হওয়ার অনুষ্ঠানে ইহুদিবাদী ও মিশরীয় কর্মকর্তারা ছাড়াও কায়রোয় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত স্টিফেন বিকরফ্‌ট উপস্থিত ছিলেন ।

২০১১ সালের আগস্ট মাসে সিনাই উপত্যকায় ইসরাইল ও মিশরের সীমান্তবর্তী এলাকায় ছয়জন মিশরীয় পুলিশকে হত্যা করেছিল তেলআবিব। ওই ঘটনার জের ধরে একই বছরের ৯ সেপ্টেম্বর হাজার হাজার মিশরীয় বিক্ষোভকারী কায়রোস্থ ইসরাইলি দূতাবাসে হামলা চালায়। সে সময় ইহুদিবাদী রাষ্ট্রদূতসহ অন্যান্য কূটনীতিক মিশর থেকে পালিয়ে প্রাণ বাঁচান। তখন থেকে গত চার বছর মিশরে ইসরাইলি দূতাবাস বন্ধ ছিল ।