| |

জামালপুরে অবৈধ বালুর উত্তোলনের ড্রেজার মেশিনের পাইপ পড়ে কৃষকের মৃত্যু॥ এলাকাবাসীর বিক্ষোভ

জামালপুর প্রতিনিধি॥জামালপুর সদর উপজেলার সুলতান নগর জামালপুর অর্থনৈতিক অঞ্চল (ইপিজেড)এলাকায় অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের ড্রেজার মেশিনের পাইপ পড়ে নজরুল ইসলাম নামে এক একজন কৃষকের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। এই ঘটনায় বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসীর মাঝে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসীর দাবী অবৈধভাবে বালু উত্তোলন বন্ধ ও নিহতের পরিবারের ক্ষতিপূরনের দাবি জানিয়েছে। নিহত নহরুল ইসলাম জামালপুর সদর উপজেলার সুলতান নগর গ্রামের মো.হাসমত আলী খানের ছেলে।

এলাকাবাসী ও নিহতের পরিবার সুত্রে জানাযায়, সুলতান নগর গ্রামের কৃষক নজরুল ইসলাম গত ১৮ফেব্রুয়ারী সোমবার দুপুরে ইরি-বোরো ক্ষেতে কাজ করছিল। এ সময় অবৈধ বালু উত্তোলনের ড্রেজার মেশিনের লোহার পাইপ তার মাথার উপড় পড়ে যায়। গুরুতর আহত অবস্থায় লোকজন নজরুলকে উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত ১৯ ফেব্রুয়ারী মঙ্গলাবার নজরুল ইসলাম মারা যান। তার মরদেহ গ্রামের বাড়িতে পৌছলে এলাকাবাসী বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠে । নজরুলের অকাল মৃত্যুর জন্য এলাকাবাসী ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানকে দায়ী করে দৃষ্ঠান্তমুলক শাস্তি এবং মৃত নজরুলের অসহায় পরিবারের ক্ষতিপুরণসহ অপরিকল্পিত অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলন বন্ধের দাবি জানান।
ইপিজেড এলাকার মাটি ভরাটের ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের সুপার ভাইজার বারেক বিশ^াস পাইপ বসানোর ক্রটির কারণে এই দুর্ঘটনা ঘটতে পারে বলে স্বীকার করেন। এ ব্যাপারে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান এম এম বিল্ডার্স কর্তৃপক্ষ দূর্ঘটনায় নিহত পরিবারকে নগদ ৩ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরন প্রদান করেন এবং আরো ১ লক্ষ টাকা প্রদানের আশ^াস দেন।
অপরদিকে জামালপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক লোকমান আলী ও সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফরিদা ইয়াসমিন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। জেলা প্রশাসন ১০ হাজার টাকা ও উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ৫ হাজার টাকা আর্থিক সহায়তা প্রদান করেন নিহতের পরিবারকে। এ সময় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক লোকমান আলী ঘটনাটি তদন্তের আশ^াস দেন।
এ বিষয়ে নারায়ণপুর তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ এসআই আব্দুল লতিফ মিয়া ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, আমি ঘটনাস্থল পরিদশন করেছি, এখনো মামলা হয়নি কেউ মামলা করতে আসলে আমরা মামলা গ্রহন করা হবে বলে জানান।