| |

বারহাট্টায় স্কুলশিক্ষক খুন, গ্রেফতার-১

সৌমিন খেলন : নেত্রকোনার বারহাট্টা উপজেলায় মনাস সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক অর্জুন বিশ্বাস (৪৫) খুনের মূল পরিকল্পনাকারী ফুয়াদ খান বাবুলকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। নিহত শিক্ষক উপজেলা সাঁওতা ইউনিয়নের রামপুরদশাল গ্রামের খিতীশ বিশ্বাসের ছেলে। খুনের মূল পরিকল্পনাকারী বাবুল সে উপজেলার আসমা ইউনিয়নের মনাস গ্রামের সামসুদ্দিন’র ছেলে। বারহাট্টা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সালেমুজ্জামান স্বদেশ সংবাদকে জানান, বুধবার (২ ডিসেম্বর) সকালে স্কুলে যাওয়ার পথে শিক্ষক অর্জুনকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। তিনি যোগ করেন, এর আগে শিক্ষক অর্জুনের শরীরের বিভিন্নস্থানে কুপিয়ে জখম করে একদল সন্ত্রাসী । এসময়, শিক্ষকের শাহাদাত-মধ্যমা দুটি আঙুল বাম হাত থেকে বিছিন্ন হয়ে পড়ে ও বাম পা’র হাঁটুর নিচে মারাত্মক জখম হয়। স্থানীয়দের সহযোগীতায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হলে কত্যর্বরত চিকিৎসক শিক্ষককে মৃত ঘোষণা করেন। এদিকে খবর পেয়ে নেত্রকোনা থেকে ঘটনাস্থল পরিদর্শনে ছুটে যান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর) হাবিবুর রহমান প্রামাণিক। শিক্ষক হত্যাকান্ডের ঘটনা পূর্ব পরিকল্পিত দাবি করে তিনি জানান, খুনের মূলহোতা ফুয়াদ খান বাবুলকে তাৎক্ষনিক গ্রেফতার করা হয়েছে। খুনের কারন সম্পর্কে জানতে চাইলে হাবিবুর রহমান স্থানীয়দের বরাত দিয়ে স্বদেশ সংবাদকে বলেন, স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির সদস্য বাবুলের সঙ্গে উন্নয়ন ফান্ড নিয়ে প্রধান শিক্ষকের মনমালিন্যতা চলছিল। বাবুল শিক্ষককে এরই মধ্যে বেশ কিছুদিন ধরে হুমকিও দেয়। পরে বাবুলের পরিকল্পনানুযায়ী স্কুলে যাওয়ার পথে শিক্ষককে কুপিয়ে খুন করা হয় আজ। শিক্ষকের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়। শিক্ষক খুনের প্রতিবাদে ফুঁসে উঠে উপজেলাবাসী। হত্যাকারীদের অবিলম্বে গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে বিভিন্ন স্থান থেকে ভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ এক হয়ে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে। পরে বিক্ষোভকারীরা মিছিল নিয়ে বারহাট্টা থানা ঘেরাওসহ আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে আসামীদের গ্রেফতারের কথা বলে কঠিন আন্দোলনের হুশিয়ারী দেন। এসময়, বারহাট্টা উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান খায়রুল কবির খোকন, বারহাট্টা সিকেপি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্র আহসান কবীর রিয়াদ, ব্যাবসায়ী ফয়সাল আমীন ও নুরুল হুদা হত্যাকান্ডের বর্ননা দিয়ে স্বদেশ সংবাদকে বলেন, হত্যাকান্ডটি নিঃসন্দেহে নির্মম ও লোমহর্ষক!