| |

গৌরীপুরে ট্রেন ডাকাতি, আহত ৩

গৌরীপুর সংবাদদাতা ॥ ময়মনসিংহ-গৌরীপুর-জারিয়া রেলপথের মঙ্গলবার(১ডিসেম্বর) রাত সাড়ে ৮টার দিকে জারিয়া থেকে ময়মনসিংহগামী যাত্রীবাহী ট্রেনটি গৌরীপুর রেলওয়ে জংশন থেকে ছেড়ে যাওয়ার পর ডাকাতির সংগঠিত হয়। ডাকাতরা ট্রেনে যাত্রীদের অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে নগদ টাকা, মোবাইলসহ মূলবান সামগ্রী লুট করে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় ট্রেনের তিনজন যাত্রী আহত হয়েছেন। তবে গৌরীপুর রেলওয়ে পুলিশের দাবি ট্রেনে ডাকাতি নয় ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে।
যাত্রীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, জারিয়া থেকে ছেড়ে আসা ময়মনসিংহগামী ট্রেনটি গৌরীপুর রেলওয়ে জংশনে যাত্রাবিরতি দেয়। পরে ময়মনসিংহের উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়ার পর বিসকা রেলওয়ে স্টেশন সংলগ্ন এলাকায় ডাকাতদের কবলে পড়ে। এ সময় ডাকাতদলের সদস্যরা অস্ত্রের ভয় ও মারধর করে ট্রেনের যাত্রীদের কাছ থেকে নগদ টাকা, মোবাইলসহ মূলবান সামগ্রী লুট করে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় ডাকাতদলের ভয়ে আত্মরক্ষার্থে চলন্ত ট্রেন থেকে লাফিয়ে নামতে গিয়ে রাজেশ পাল নামে এক যাত্রী আহত হয়েছেন। এছাড়াও ডাকাতদলের সদস্যরা মারধর করে আরও ২ যাত্রীকে আহত করে। তবে তাদের নাম ঠিকানা জানা যায়নি। আহত ট্রেনযাত্রী রাজেশ পাল বলেন, ‘ট্রেনটি গৌরীপুর রেলওয়ে স্টেশন থেকে ছাড়ার পর আমি ঘুমিয়ে পড়ি। কিছুক্ষণ পর যাত্রীদের চিৎকারে ঘুম ভেঙে গেলে দেখি ৩ থেকে ৪ জনের একটি ডাকাতদল ধারালো অস্ত্রের মুখে যাত্রীদের জিম্মি করে সর্বস্ব ছিনিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। এ অবস্থায় আমি ভয় পেয়ে জীবন বাঁচাতে চলন্ত ট্রেন থেকে লাফিয়ে পড়ি। এতে আমার শরীরের বিভিন্ন অংশ কেটে গেছে। পরে স্থানীয়রা আমাকে উদ্ধার করে বিসকা বাজারের একটি ওষুধের দোকানে চিকিৎসা দেয়। আমার মাথায় দুইটি সেলাই লেগেছে।’
গৌরীপুর রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ নিরঞ্জন পাল বলেন, ‘জারিয়া ট্রেনে ডাকাতির কোনো খবর পাননি। তবে ট্রেনে তাদের নিয়োজিত পুলিশ সদস্যদের মাধ্যমে জানতে পেরেছেন, ২ থেকে ৩ জন যাত্রীর কাছ থেকে মোবাইল ও মালামাল ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে।’