| |

ত্রিশালে সংসদ সদস্যের আচরনবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ এনে স্বতন্ত্রপ্রার্থীর সংবাদ সম্মেলন

রফিকুল ইসলাম শামীমঃ
ময়মনসিংহের ত্রিশালে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে ঘিরে ওই আসনের সংসদ সদস্য হাফেজ রুহুল আমিন মাদানীর বিরুদ্ধে আচরনবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ এনে সংবাদ সম্মেলন করেছেন স্বতন্ত্রপ্রার্থী আবদুল মতিন সরকার।
গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলা আওয়ামীলীগের দলীয় কার্য্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য প্রদান কালে স্বতন্ত্রপ্রার্থী আবদুল মতিন সরকার বলেন, আগামী ৩১ মার্চ ত্রিশাল উপজেলা পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। আমি ওই নির্বাচনে আনারস প্রতীকে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় করছি। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ত্রিশাল হতে নির্বাচিত সংসদ সদস্য হাফেজ রুহুল আমিন মাদানী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষনার পর হতে অদ্যাবধি নৌকা প্রতিকের প্রার্থীকে প্রকাশ্যে সমর্থন করে বিভিন্ন সভা-সমাবেশে প্রত্যক্ষ ও প্ররোক্ষভাবে নৌকার পক্ষে ভোট চাইছেন। ১৯ মার্চ সংসদ সদস্য হাফেজ রুহুল আমিন মাদানী কর্তৃক আচরন বিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ সুনিদ্রিষ্ট প্রমাণসহ প্রধান নির্বাচন কমিশনসহ সংশ্লিষ্ট সকল মহলকে লিখিতভাবে অবহিত করেছি।
তিনি বলেন,সংসদ সদস্য রুহুল আমিন মাদানী ও নৌকার প্রার্থী ইকবাল হোসেন একত্রে বিভিন্ন সমাবেশে উপস্থিত হয়ে শুধু নির্বাচনী প্রচার সভায় বক্তৃতায় করছেন না, তা আবার ফলাও করে স্ট্যাটাস দিয়ে ফেসবুকে প্রচার করছেন। যেখানে বর্তমান সরকার ও নির্বাচন কমিশনার সমান্তরাল মাঠ নিশ্চিত করণে একটি সুষ্ঠ অবাধ ও নিরপেক্ষ উপজেলা পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত করতে বদ্ধপরিকর, সেখানে ত্রিশালের সংসদ সদস্য নির্বাচনের সুষ্ঠ পরিবেশ বিনষ্ট করতে যেন তেন প্রকারে তার সমর্থিত নৌকার প্রার্থীকে জয়ী করার হীন চেষ্টায় লিপ্ত রয়েছেন।
আব্দুল মতিন সরকার আরো বলেন, আমি স্বতন্ত্র প্রার্থী হলেও উপজেলা আওয়ামীলীগ, ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ, বীর মুক্তিযোদ্ধাগন,১০ ইউপি চেয়ারম্যানগন, পৌর কাউন্সিলরবৃন্দ ও সুশীল সমাজসহ সর্বস্তরের মানুষ দলমত নির্বিশেষে আমার প্রতি অকুন্ঠ সমর্থন ব্যক্ত করেছেন। আমার প্রতি জনগনের সর্বাত্মক সমর্থনে সাংসদ ভীত হয়ে তার ভবিষ্যত গনবিরোধী ও বেআইনী কার্যক্রমে আমি নির্বাচিত হলে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করতে চাইছেন।
এসময় জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক যুগ্ন-সাধারন সম্পাদক নবী নেওয়াজ সরকার, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক যুগ্ন-আহবায়ক প্রবীন আওয়ামীলীগ নেতা ফজলে রাব্বি, উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন-আহবায়ক ও উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান এএনএম শোভা মিয়া আকন্দ, মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার মুজাহিদ খাঁন ভোলা, মঠবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবদুল কদ্দুস মন্ডল, উপজেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি সোয়েল মাহমুদ সুমন প্রমূখসহ দলীয় নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।