| |

কবি নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়: দুর্ঘটনায় নিহত শিক্ষার্থীর শোকে ক্লাশ-পরীক্ষা বন্ধ

জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের কিম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং (সিএসই) বিভাগের দুই শিক্ষার্থী গতকাল মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হওয়ার ঘটনায় আজ ২৯-১২-২০১৫ তারিখ মঙ্গলবার বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল ক্লাশ ও পরীক্ষা বন্ধ রাখা হয়। সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য প্রফেসর ড. মোহীত উল আলম কালো পতাকা উত্তোলন করে গভীর শোক প্রকাশ করেন। নিহত দুই শিক্ষার্থীর বিদেহী আত্মার মাগফিরাত ও শান্তি কামনা করে এক মিনিট নিরবতা পালন ও দোয়া করা হয়। এসময় মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য প্রফেসর ড. মো: আলাউদ্দিন, কবি নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় ট্রেজারার প্রফেসর এ এম এম শামসুর রহমান, কলা অনুষদের ডিন ও প্রক্টর প্রফেসর ড. মো: মাহবুব হোসেন, ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. সুব্রত কুমার দে, অর্থনীতি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর ড. মো: নজরুল ইসলাম, ইংরেজি ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ইমদাদুল হুদা, চারুকলা বিভাগের বিভাগীয় প্রধান তপন কুমার সরকার, থিয়েটার এন্ড পারফরমেন্স স্টাডিজ বিভাগের বিভাগীয় প্রধান সৈয়দ মামুন রেজা, পরিচালক (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) মো: হাফিজুর রহমান, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক ড. নির্মল চন্দ্র সাহাসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, কর্মকর্তা, র্কমচারী এবং শিক্ষার্থীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
এছাড়া নিহত দুই শিক্ষার্থীর বিদেহী আত্মার মাগফিরাত ও শান্তি কামনা করে বাদ জোহর বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মসজিদে এক মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।
উল্লেখ্য সিএসই বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র মাহফুজুল আলম আসিফ এবং একই বিভাগের প্রথম বর্ষের ছাত্র আব্দুল্লাহ আল মামুন মোটর সাইকেল যোগে বিশ্ববিদ্যালয়ের রাস্তা দিয়ে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে উঠতেই পেছন থেকে শাহজালাল পরিবহনের একটি বাস ধাক্কা দিয়ে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই আব্দল্লাহ আল মামুন নিহত হয় এবং ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে মাহফুজুল আলম আসিফ মরা যায়। সংবাদ পাওয়া মাত্রই মাননীয় উপাচার্য প্রফেসর ড. মোহীত উল আলম ঘটনাস্থলে এবং ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে যান। এসময় তিনি নিহত দুই শিক্ষার্থীর পরিবারের প্রতি গভীর শোক ও সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।