| |

মাদক বেচাকেনার টাকা নিয়ে কথাকাটাকাটি ধর্মপাশায় দূর্বৃত্তদের ছুরিকাঘাতে যুবক খুন, গ্রেপ্তার১

ধর্মপাশা প্রতিনিধি : মাদক বেচা কেনার টাকা নিয়ে কথাকাটাকাটিকে কেন্দ্র করে সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা উপজেলার সেলবরষ ইউনিয়নের মীর্জাপুর গ্রামে গত শুক্রবার দিবাগত রাতে দূর্বৃত্তদের ছুরিকাঘাতে তোফায়েল আহমেদ ওরফে চঞ্চল (২৭) নামের এক যুবক খুন হয়েছেন। নিহতের বাড়ি উপজেলার সেলবরষ ইউনিয়নের মীর্জাপুর গ্রামে। সে ওই গ্রামের নূরুল ইসলাম তালুকদারের ছেলে। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে পাশ্ববর্তী নেত্রকোনার মোহনগঞ্জ উপজেলার বড়কাশিয়া- বিরামপুর ইউনিয়নের বড়কাশিয়া গ্রামের আমিরুল ইসলাম ওরফে বাবু (২৫) নামের এক যুবককে গতকাল শনিবার সকাল সোয়া ছয়টার দিকে ঘটনাস্থল থেকে গ্রেপ্তার করেছে ধর্মপাশা থানা পুলিশ।
এলাকাবাসী ও থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার সেলবরষ ইউনিয়নের মীর্জাপুর গ্রামের তোফায়েল আহমেদ ওরফে চঞ্চল মাদকসেবী হিসেবে পরিচিত। গত শুক্রবার দিবাগত রাত অনুমান চারটার দিকে উপজেলার মীর্জাপুর গ্রামের সামনের আমন জমিতে তোফায়েল সহ আরও ৫/৬জন মাদকসেবী ওই স্থানে বসে মাদক সেবন করে। মাদক সেবন শেষে ওইদিন রাত সাড়ে চারটার দিকে সেখানে মাদক বেচা কেনার টাকা নিয়ে তোফায়েলের সঙ্গে আমিরুলসহ অন্যান্যদের সঙ্গে কথাকাাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে তোফায়েলকে ছুরিকাঘাত করে মোটরসাইকেল যোগে অন্যান্য সঙ্গীরা সেখান থেকে পালিয়ে গেলেও আহত তোফায়েল আমিরুলকে ঝাপটে ধরে সজোরে চিৎকার দিলে এলাকাবাসী এগিয়ে এসে আমিরুলকে আটক করে। ঘটনার সঙ্গে সঙ্গে স্থানীয় লোকজন গুরুতর আহত অবস্থায় তোফায়েলকে শনিবার সকাল ছয়টার দিকে পাশের মোহনগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করে।
ধর্মপাশা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো.গোলাম কিবরিয়া বলেন,মাদক কেনা বেচার লেনদেন নিয়ে এ হত্যাকাল্ডের ঘটনা ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য সুনামগঞ্জ জেলা আধুনিক সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অন্যান্যদের গ্রেপ্তারের চেষ্ঠা অব্যাহত রয়েছে। এ ঘটনায় শনিবার সন্ধ্যা ছয়টা পর্যন্ত থানায় কোনো মামলা হয়নি।