| |

শ্রীবরদীতে স্বামী হত্যার বিচার চায় হালিমা

আলমগীর শেরপুর থেকে ঃ শেরপুর জেলার শ্রীবরদী উপজেলাধীন শৈলারপাড় গ্রামের মামলার বাদী নিহতের স্ত্রী খালেদা আক্তার ওরফে হালিমা স্বামী হত্যার সুষ্ঠ বিচার চায়। এলাকার প্রভাবশালীদের মীমাংশার জন্য মানসিকভাবে চাপ সৃষ্টি করছে এবং হত্যার করার হুমকি দিচ্ছে বলে মামলার বাদী অভীযোগ করেন। মামলার সূত্রে জানা গেছে শ্রীবরদী উপজেলাধীন শৈলার পাড় গ্রামে নিহত ফারুক হোসেনের সাথে প্রতিবেশী আমিনুল ইসলাম ওরফে টেপার দীর্ঘদিন যাবত জায়গা জমি নিয়ে শত্রুতা চলে আসছে এরই জের ধরে গত ১নভেম্বর ২০১৫ ইং তারিখ রাত সাড়ে আটটার সময় প্রতিবেশী আমিনুল ওরফে টেপা,তার স্ত্রী রাবেয়া,ছেলে আরিফুল গং এরা ফারুক হোসেন তার স্ত্রী খালেদা আক্তার ওরফে হালিমাকে আসামীরা আতংকিত ভাবে হামলা করে এবং ১নং আসামী ধারালো দা দিয়ে ফারুককে কোপ দিলে ঘটনাস্থলেইপড়ে যান তার স্ত্রী হালিমাসহ তাদেরকে অন্যান্য আসামীরা লাঠি,লোহার রড ও শাবল দিয়ে মারাতœক ভাবে আক্রমন করেন পড়ে তাদেরকে উদ্ধার করে সাক্ষীগণ শেরপুর জেলা হাসপাতালে ভর্তি করান তাদের অবস্থা অবনতি হলে স্বামী স্ত্রী দুজনকেই ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করে। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় পরদিন ২নভেম¦র সকালে ফারুক হোসেন মারা যান। এ ব্যাপারে শ্রীবরদী থানায় একটি হত্যা মামলা করা হয়েছে মামলাটি সি.আই.ডি তদনÍ করছে। মামলার বাদী সন্তানসম্ভাবনা খালেদা আক্তার ওরফে হালিমা এই প্রতিবেদকের কাছে অভিযোগ করেন আসামীরা প্রতিনিয়ত আমাকে হত্যার হুমকি দিচ্ছে এবং এলাকার ক্ষমতাসীন দলের কতিপয় প্রভাবশালী নেতারা মামলাটি ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করছে ও মিমাংসার জন্য আমাকে চাপ সৃষ্টি করছে। আমি অসহায় নারী আমার স্বামী হত্যার সুষ্ট ও ন্যায় বিচার প্রশাসনের কাছে দাবী করছি।