| |

মুক্তাগাছায় জমি দখল নিতে বাড়ি-ঘর ভাংচুর

মুক্তাগাছা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি
জমি দখল নিতে বাড়ি-ঘর ভাংচুরের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার দুপুরে উপজেলার খেরুয়াজানী গ্রামে। এ ঘটনায় মুক্তাগাছা থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।
অভিযোগের ভিত্তিতে জানা যায়, মুক্তাগাছা উপজেলার খেরুয়াজানী ইউনিয়নের খেরুয়াজানী গ্রামের আব্দুল করিম দীর্ঘদিন ধরে বাড়ি করে বসবাস করে আসছিলেন। এ জমি দাবি করেন, একই এলাকার মৃত সামছুল হকের ছেলে দুলাল মিয়া। এ নিয়ে তাদের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। ঘটনার দিন দুপুরে দুলাল ও তার সহযোগিরা লাঠি সোটা নিয়ে অতর্কিত হামলা চালায় আব্দুল করিমের বাড়িতে। তারা পুরো বাড়ি ভাংচুর করে তছনছ করে দেয়। লুটপাট করা হয় বাড়িতে। এতে শীতের মধ্যে কুয়াশায় খোলা আকাশের নিচে রাত কাটাতে হচ্ছে পরিবারের সদস্যদের।
আব্দুল করিম বলেন, সে দীর্ঘদিন ধরে তার জমিতেই বাড়ি নির্মাণ করে বসবাস করে আসছিলেন। হঠাৎ এ জমির মালক দাবি করে একই এলাকার দুলাল মিয়া তার বাড়ি-ঘর ভাংচুর করে। এখন তারা পুরো পরিবার নিয়ে খোলা আকাশে নিচে বসবাস করছেন।
তবে এ দাবি অস্বীকার দুলাল মিয়া বলেন, সে সাব কাওলামূলে এ জমিটি কিনেছেন একই এলাকার তোতা মিয়ার কাছ থেকে। কাগজমূলে সে জমির মালিক। এ নিয়ে একাধিক গ্রাম্য শালিসে সিদ্ধান্ত হয় তার জমি তাকে বুঝিয়ে দেয়ার। এর পরও তার জমি ছেড়ে না দেওয়ায়, সে তার লোকজন নিয়ে আব্দুল করিমের বাড়ি ভেঙ্গে দেওয়া হয়।
মুক্তাগাছা থানার ওসি বিপ্লব কুমার বিশ্বাস বলেন, অভিযোগ পাওয়ার পর ঘটনা তদন্তে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেলে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।