| |

ভালুকায় মুক্তিযোদ্ধা সন্তানের হাত ভেঙ্গে দিল দূর্বত্তরা; ৯৯৯ কলে রক্ষা

ভালুকা প্রতিনিধি:
ময়মনসিংহ ভালুকা উপজেলা ভরাডোবা ইউনিয়নের রাংচাপড়া গ্রামে ২৭ ডিসেম্বর সকালে ১১ টার দিকে ‌সিরাজুল ইসলা‌মের বা‌ড়ি‌তে একই এলাকার আঃ মজিদ ফকির ও তার সন্ত্রাসী দল অনুপ্রবেশ করে অতর্কিত হামলা চালিয়ে ব্যাপকভাবে ভাংচুর করে প্রায় ৫০ হাজার টাকার ক্ষতি সাধন করে হাত ভে‌ঙ্গে দি‌য়ে‌ছে মুক্তিযোদ্ধা সন্তান ও কৃষকলীগ নেতা সিরাজুল ইসলামের স্ত্রী মোছা. মিনা আক্তারের।
অভিযোগ সূত্রে জানাযায়, পারিবারিক ছোটখাট বিষয় নিয়ে দীর্ঘদিন যাবত রাংচাপড়া গ্রামের সিরাজুল ইসলাম ও তার স্ত্রী মিনা আক্তারের সাথে একই এলাকার আঃ মজিদ ফকির গংরা ঝগড়া বিবাদ করতো। ঘটনার দিন আবু ইউসুফ মৌলভীর পুত্র আঃ মজিদ ফকির (৫৮), আঃ মজিদের পুত্র লুৎফর রহমান নাদিম (২৮) ও নাহিদ মিয়া (২৪), মোজাম্মেল হকের পুত্র এনামুল হক সুমন সহ আরও অজ্ঞাত কয়েকজন পূর্বপরিকল্পিতভাবে দা, লাঠি, লোহার রড নিয়ে মোছা. মিনা আক্তারের ওপর হামলা চালিয়ে বেধর মারপিট করে বাম হাত ভেঙ্গে দিয়ে ঘরে তালা ঝুলিয়ে রাখে দূর্রত্তরা। মিনার ডাক চিৎকারে তার মেয়ে সুমি আক্তার এগিয়ে আসলে তাকেও উল্লেখ ব্যক্তিরা কিল খুষি, লাথি ও এলোপাথারীভাবে শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাত করে। মিনা আক্তার ‘‘৯৯৯’’ এ ফোন করলে ভালুকা মডেল থানা পুলিশ উদ্ধার করে ভালুকা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে উন্নত চিকিৎসার জন্য কর্তব্যরত ডাক্তার ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করেন। পরবর্তীতে পুনরায় ভালুকা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রেরন করলে বর্তমানে মিনা আক্তার চিকিৎসাধীন রয়েছে। এ ঘটনায় মিনার স্বামী সিরাজুল ইসলাম বাদী হয়ে ভালুকা মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা নং ২৫, তারিখ ৩০/১২/২০২০ ইং। আসামীরা কয়েকদিন ধরে মামলা তুলে নিতে হুমকি দিয়ে আসছে মামলার সিরাজুল ইসলামকে।