| |

গৌরীপুর পৌরসভায় মেয়র পদপ্রার্থী প্রথম নারী তাহরিমা

গৌরীপুর (ময়মনসিংহ) সংবাদদাতা ॥
ময়মনসিংহের গৌরীপুর পৌরসভা নির্বাচনে প্রথম নারী মেয়র প্রার্থী হয়েছেন তাহরিমা আক্তার চুমকি। সোমবার (১১জানুয়ারি) নির্বাচনের প্রতিক বরাদ্দ করা হয়েছে। তিনি পেয়েছেন জগ প্রতীক। মেয়র প্রার্থীদের তুলনায় বয়সের দিক থেকে তিনি তরুণ। তাই ভোটের মাঠে তার ভরসার জায়গাও তরুণ ও নারী ভোটার।
তাহরিমা আক্তার চুমকি গৌরীপুর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও ইউসিসিএ লিঃ এর চেয়ারম্যান প্রয়াত মাসুদুর রহমান শুভ্রর স্ত্রী। শুভ্র গৌরীপুর পৌরসভা নির্বাচনে জনপ্রিয় মেয়র প্রার্থী হিসাবে প্রচারণায় ছিলেন। গত বছরের ১৭ অক্টোবর শুভ্র গৌরীপুর শহরের পানমহালে গণসংযোগ করাকালে সন্ত্রাসীরা প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা করে। শুভ্রর মৃত্যুর পর তার স্বপ্ন পূরণ করতে গৃহবধূ থেকে ভোটের মাঠে আগমণ ঘটে স্ত্রী তাহরিমার। প্রয়াত শুভ্রর দাদা ও তাহরিমা চুমকির দাদাশ্বশুর বীরমুক্তিযোদ্ধা ডাঃ এম.এ সোবহান ভাষা সৈনিক ও মুক্তিযুদ্ধেও সংগঠক ছিলেন। তিনি বঙ্গবন্ধু সহচর ও আমৃত্যু আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে ওতপ্রোতভাবে জড়িত ছিলেন।
তাহরিমা ছাড়াও এই পৌরসভায় মেয়র পদে আরো ছয়জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তারা হলেন আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রাথী মোঃ শফিকুল ইসলাম হবি (নৌকা), বিএনপি মনোনীত প্রার্থী আতাউর রহমান (ধানের শীষ), ন্যাপ মনোনীত আবু সাইদ মোঃ ফারুকুজ্জামান (কুঁড়েঘর), স্বতন্ত্র তিন প্রার্থীর মধ্যে বর্তমান মেয়র সৈয়দ রফিকুল ইসলাম (নারিকেল গাছ), আব্দুল কাদির (মোবাইল) ও আবু কাউছার চৌধুরী (চামচ) প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।
১৯২৭ সালে প্রতিষ্ঠিত গৌরীপুর পৌরসভা নির্বাচনে এর আগে মেয়র পদে কোনো নারী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেনি। তাই প্রথম নারী মেয়র প্রার্থী হিসাবে তাহরিমাকে ঘিরে ভোটারদের আগ্রহ রয়েছে। পাশাপাশি শুভ্রর স্ত্রী হিসাবের ভোটের মাঠে আলোচনায় আছেন এই নারী প্রার্থী।
ভোটের মাঠে তাহরিমা নবীন হলেও প্রবীণ প্রার্থীদের সাথে পাল্লা দিয়ে গণসংযোগ করে যাচ্ছেন সমানতালে। প্রতিদিন সকাল থেকে রাত পর্যন্ত পৌর এলাকায় গণসংযোগ করছেন। এসব গণসংযোগে খুব অল্প কথায় জনগণের কাছে নিজের বার্তা দিচ্ছেন। এরপর চাইছেন ভোট।
তাহরিমা আক্তার বলেন শুভ্রর স্বপ্ন ছিল মেয়র হয়ে গরিব-দুঃখী মানুষের পাশে থাকবে। গৌরীপুরকে মডেল পৌরসভা করবে। তার স্বপ্ন পূরণ করতেই করতে নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছি। যারা শুভ্র হত্যার বিচার চান, রাজনীতিতে পরিবর্তন চান, তাঁরা অবশ্যই আমাকে ভোট দিবেন। পাশাপাশি তরুণ ভোটার ও নারীদের একটি বড় অংশের ভোট পাবো।
গৌরীপুর সরকারি কলেজের ¯œাতক শেষবর্ষের ছাত্রী তাহরিমা আক্তার । স্বামী শুভ্র রাজনীতি ও জনসেবা নিয়ে ব্যস্ত থাকলেও তাহরিমার ব্যস্ততা ছিল পড়াশোনা ও সংসার নিয়েই। তাই গৃহবধূ থেকে ভোটের মাঠে এসে আওয়ামী লীগ, বিএনপি প্রার্থীদের বিরুদ্ধে চুমকি কতটুকু ভাল করবেন এ নিয়ে স্থানীয় রাজনীতির মাঠে জোর আলোচনা আছে।
এ প্রশ্নের বিপরীতে তাহরিমা আক্তার বলেন, দলীয় প্রার্থীর বাইরে মানুষ কাউকে নির্বাচিত করবে না এমনটা ভাবা ঠিক নয়। আমি ভোটের মাঠে যেখানেই যাচ্ছি ভোটারদের সাড়া পাচ্ছি। সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে বিজয়ী হবো।
আগামী ৩০ জানুয়ারি গৌরীপুর পৌরসভার ৯টি কেন্দ্রে ভোট অনুষ্ঠিত হবে। মোট ভোটার ২১ হাজার ২১২ জন। এদের মধ্যে নারী ১০ হাজার ৮৪৬ জন এবং পুরুষ ভোটার ১০ হাজার ৩৬৬ জন।