| |

আমি বক্তৃতা দিতে আসি নাই, এসেছি আপনাদের দেখতে ও মিঠামইন দেখতে – রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ

নজরুল ইসলাম খায়রুল, প্রতিনিধি: রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ বলেন, আসলে আজকে আমি বক্তৃতা দিতে আসি নাই, এসেছি আপনাদের দেখতে ও মিঠামইন দেখতে। সেনাবাহিনীর ভাইয়েরা, পুলিশ ভাইয়েরা, র‌্যাবের ভাইয়েরা এবং আরো বিভিন্ন বাহিনীর ভাইয়েরা মিলে প্রায় ২ হাজার হয়ে যাবে। এ অবস্থার মধ্যে আমি আসতে পারি না, আসলে কি হবে?
বুধবার (১৩ জানুয়ারি) দুপুর ২টা ৫ মিনিটে মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হক কলেজ পরিদর্শনের সময় তিনি ছাত্র-ছাত্রী ও উপস্থিত জনসাধারণের উদ্দেশ্যে এসব কথা বলেন তিনি।
রাষ্ট্রপতি আরও বলেন, আপনাদের সঙ্গে কাছাকাছি বসে প্রাণখুলে কথাবার্তা বলা সম্ভব হয় না, আসলে মনটা ভরে যায়। প্রায় ১ হাজার, দুই হাজার বিভিন্ন বাহিনী এবং সরকারি বিভিন্ন উর্দ্ধতন কর্মকর্তারা তারা যদি সবাই চলে যেত আমি যদি পূর্বের মতো একা একা থেকে যেতাম বাড়িতে। এভাবে থাকতে পারলে খুব ভালো লাগতো।
তিনি হাস্যরস করে বলেন, বাড়িতে একা থাকতে দেবে বলে মনে হয় না।
তিনি আরও বলেন, পূর্বে যখন মিঠামইনে আসতাম, কামালপুর, মিঠামইন বাজার, কুইল্লাপাড়া, গিরিশপুর, বড় হাটি বিভিন্ন পাড়া বা গ্রামে হাটতাম একা একা। বঙ্গভবনে যখন থাকি প্রহরার মধ্যে, বর্তমানে এখানো আমি প্রহরার মধ্যেই মোটামোটি আছি।
এর আগে দুপুর ২টার দিকে তিনি হেলিকপ্টারযোগে কিশোরগঞ্জের জেলার হাওর উপজেলা মিঠামইনে নিজ জন্মস্থানে পৌঁছেন রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ।
রাষ্ট্রপতি মিঠামইন উপজেলা সদরের কামালপুর গ্রামের নিজ বাড়িতে রাত্রিযাপন করেন। বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টা থেকে ৪টা পর্যন্ত নৌপথে মিঠামইন উপজেলার কাটখাল ও হাটুরিয়া এলাকা পরিদর্শন করেন। শুক্রবার বিকাল ৩টা ৩০ মিনিটে তিনি মিঠামইন ত্যাগ করবেন।