| |

বকশীগঞ্জে প্রশাসনের নাকের ডগায় তৈরি হচ্ছে নকল সরিষার তেল

বকশীগঞ্জ প্রতিনিধি : জামালপুরের বকশীগঞ্জে প্রশাসনের নাকের ডগায় অবৈধভাবে তৈরি হচ্ছে নকল সরিষার তেল। কেমিক্যাল দিয়ে তৈরি ভেজাল ও নকল সরিষার তেল বাজার সয়লাব হয়েছে। নানা বিষাক্ত কেমিক্যাল মিশ্রিত ভেজাল তেলকে আসল সরিষার তেল ভেবে রান্নায় ব্যবহার করে অগণিত মানুষ প্রতিনিয়ত গ্যাস্ট্রিকসহ নানা রোগে আক্রান্ত হয়ে পড়ছে। ভেজাল তেল জনস্বাস্থ্যের জন্য হুমকিস্বরূপ। বিশেষ করে শিশুস্বাস্থ্যের জন্য খুবই ক্ষতিকর। বর্তমান সরকার খাদ্যে ভেজাল নিয়ে শক্ত অবস্থানে থাকলেও প্রশাসনিক দুর্বলকার কারণে স্থানীয় পর্যায়ে খাদ্যে ভেজাল রোধ করা সম্ভব হচ্ছে না।
বকশীগঞ্জ পৌর শহরের স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংকের সামনে নেপাল সাহার দোকানের পেছনে জীতেন সাহা নামে এক অসাধু ব্যবসায়ী ও পুরাতন গুরুহাটিতে এক ব্যবসায়ী মেশিন বসিয়ে কেমিক্যাল দিয়ে তৈরি করছে ভেজাল সরিষার তেল। উৎপাদিত ভেজাল সরিষার তেল সরবরাহ করা হচ্ছে বিভিন্ন হাট-বাজারে ।
এসব তেল মিলে পিঁয়াজ , সস্তা দামের স্পেন্ডেল ওয়েল, মাস্টার্ড ও ইস্ট কেমিক্যাল, রং মিশিয়ে নকল তেল তৈরি করা হয়। তেল উৎপাদনে শুধুমাত্র সরিষা ব্যবহারের কথা থাকলেও তা মানা হচ্ছে না। নামমাত্র সরিষার সাথে ওই সব মিশানো হচ্ছে। ভেজাল তেল হাট-বাজারে ও মুদি দোকানে বিক্রি করা হয়। দরিদ্র, নিম্নবিত্ত মানুষেরা এসব ভেজাল তেল ক্রয় করে নানা রকম পেটের পীড়ায় ভুগছে।
প্রকাশ্যে সরিষার তেল তৈরি করা হলেও স্থানীয় প্রশাসনের কর্মকর্তারা জেনেও না জানার ভান করছেন। ফলে এসব অসাধু ব্যবসায়ীরা ভেজাল তেল উৎপাদন করেও পার পেয়ে যাচ্ছেন।
স্থানীয়দের দাবি অবিলম্বে ভেজাল বিরোধী অভিযান পরিচালনা করে এসব অবৈধ সরিষার তেলের মিল বন্ধ করা উচিত।