| |

দুঃস্থদের সাহায্যে সরকারের পাশাপাশি সমাজের বিত্তবানদের এগিয়ে আশা উচিত ঃ রওশন এরশাদ

রঞ্জন মজুমদার শিবু ঃ জাতীয় সংসদের বিরোধী দলের নেতা বেগম রওশন এরশাদ এমপি বলেছেন, দুঃস্থদের সাহায্যর্থে সরকারের পাশাপাশি সমাজের বিত্তবানদেরও এগিয়ে আসা উচিত। তাদের পাশে দাড়ানো উচিত কেননা এরাও মানুষ। গতকাল বুধবার (১৬ সেপ্টেম্বর) সকালে ময়মনসিংহ সদর উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের বরাদ্দকৃত ঢেউটিন ও আর্থিক অনুদানের চেক দুঃস্থদের মাঝে বিতরন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। তিনি আরও বলেন এই দেশ এবং সকল অফিস আদালত আমার আপনার সকলের তাই এর রক্ষনা-বেক্ষনের দায়িত্বও আমাদের সকলের। সমাজটাকে সুন্দর করে গড়ে তোলার জন্য নতুন প্রজন্মের সন্তানদের সুন্দর করে গড়ে তুলতে হবে। সদর উপজেলা চেয়ারম্যান কামরুল ইসলাম মোঃ ওয়ালিদ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বেগম রওশন এরশাদ আরও বলেন শহরে যানযটের কারনে আমাদের সময় ও অর্থের অপচয় হচ্ছে। এই যানজট নিরসনে ব্রহ্মপুত্র নদের উপর অবিলম্বে আরো একটি ব্রীজ নির্মান করা হবে। আমরা ময়মনসিংহকে একটি মডেল হিসাবে গড়ে তুলতে চাই। এর জন্য শহর থেকে ময়লা আবর্জনা পরিস্কার ও ভেজাল মুক্ত করতে হরে। আমাদের মাঝে সচেতনতার বড়ই অভাব। আমাদের সচেতন হতে হবে এবং নিজ দায়িতে শহরকে পরিস্কার রাখতে হবে যত্রতত্র ময়লা ফেলা যাবেনা। ভেজাল বিরোধী অভিযান চালিয়ে ভেজাল কারিদের আইনের আওতায় এনে শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে। অন্যায় কারীদের প্রশ্রয় দিবেন না। ময়মনসিংহের উন্নয়নের কথা বলতে গিয়ে তিনি বলেন ময়মনসিংহ আমার বাড়ী এর উন্নয়নের জন্য আমি সর্বদা সচেষ্ঠ। আমি যতদিন বেঁচে থাকব উন্নয়ন করে যাব। আশাকরি আপনারা আমার পাশে থাকবেন। বেগম রওশন এরশাদ বিভাগ বাস্তবায়নের কথা বলতে গিয়ে তিনি আরো বলেন টাংঙ্গাইল ও কিশোরগঞ্জ জেলা ময়মনসিংহ বিভাগে অন্তর ভুক্ত হয়নি কিন্তু এখন তারা আবার ময়মনসিংহের সাথে থাকতে চায়।এই দুই জেলা যদি আসেন তাহলে আমরা তাদের স¦াগতম জানাব। বিতরন অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন অতিঃ জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট আরিফ আহমেদ খান, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) শেখ মোহাম্মদ হুমায়ুন কবীর, সদর উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান খালেদা আতিক, আশরাফুল আলম, জাতীয় পার্টি সদর উপজেলা সভাপতি জাহাঙ্গাীর আহমেদ, আকুুয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যন আলহাজ¦ আফাজ উদ্দিন সরকার, থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কামরুল ইসলাম প্রমুখ।

DSC01214
সঞ্চালনায় ছিলেন উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মুহাম্মদ মুবিনুর রহমান। বিতরন অনুষ্ঠানে ১১৩ জন দুঃস্থদের মাঝে ১১৬ বান ঢেউটিন এবং প্রতিজনকে ৩ হাজার টাকা করে আর্থিক অনুদানের চেক বিতরন করা হয়।