| |

প্রকৃত শিক্ষা ও জ্ঞানের মাধ্যমে নিজেকে এবং ভেতরের আলোকে চিনতে হবে- ভিসি মোহীত উল আলম

রফিকুল ইসলাম শামীমঃ জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলঅম বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড.মোহীত উল আলম বিশ্ববিদ্যালয়েরর নবীন শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেছেন প্রকৃত শিক্ষা ও জ্ঞানের মাধ্যমে নিজেকে এবং ভেতরের আলোকে চিনতে হবে। তোমরা সবে মাত্র বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে পা রেখেছো,তোমরা নবীন, তোমরা সমস্যা দেখে পিছু হটলে হবে না তোমাদের মেধা দিয়ে প্রজ্ঞা দিয়ে সমস্যা থেকেই সমস্যার সমাধান করতে হবে। সমস্যা থাকা মানে গতিশীলতা থাকা। আধুনিক সমাজ বিনির্মাণে তোমরা নবীনরা পথিকৃৎ। মানুষ প্রথমে সরল পথে থাকে, এরপর জ্ঞানার্জনের পথ জটিল, জ্ঞানার্জনের পরের পথ আবার সরল। তবে জ্ঞানার্জনের আগের সরল পথের থেকে পরের সরল পথ অনেক আলোকিত। জ্ঞানার্জনের মাধ্যমে বিশ্বকে নতুন করে দেখা যায়। তিনি আরও বলেন-দৈহিক ক্ষুধা সবারই এক তবে চিত্তের ক্ষুধা সবার এক নয়। চিত্তের ক্ষুধা নিবারণের জন্য জ্ঞান চর্চা করতে হয়। তিনি গতকাল সোমবার বিশ্ববিদ্যালয়ের গাহি সাম্যের গান মঞ্চে কবি নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়েরর ২০১৫-২০১৬ শিক্ষা বর্ষের শিক্ষার্থীদের নবীনবরন অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যদান কালে এসব কথা বলেন।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ আলহাজ্ব মতিউর রহমান বলেন-তোমরা শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয়ে জ্ঞানার্জনের জন্য এসো আর জ্ঞান বিতরণের জন্য বেরিয়ে যাওয়ার উদ্দেশ্য রাখবে। জ্ঞানার্জনের সাথে সাথে তোমাদের মানবিক গুণাবলী অর্জন করতে হবে। মানবিক গুণাবলী অর্জন ছাড়া সমাজের উন্নয়ন সম্ভব নয়। সমাজ তোমাদের দিকে তাকিয়ে আছে। তোমরা একে অন্যকে সহযোগিতা করবে তাহলেই তোমাদের মধ্যে সম্পীতি বাড়বে। ‘জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান দেশের এবং দেশের মানুষের জন্য এত কিছু করার পরও তাঁকে কেন হত্যা করা হলো তার জবাব এখনও আমি পাইনি। বঙ্গবন্ধুর আদর্শে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ দেশকে সামনের দিকে এগিয়ে নিচ্ছেন। আজ নারীরাও পুরুষের সাথে সাথে সমান তালে এগিয়ে যাচ্ছে। এই বিশ্ববিদ্যালয়েও ছাত্র এবং ছাত্রীর সংখ্যা প্রায় সমান। থিয়েটার এন্ড পারপরমেন্স স্টাডিস বিভাগের প্রভাষক স্বর্ন প্রভা ও ফোকলোর বিভাগের প্রভাষক বাকী বিল্লাহর পরিচালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন-নবীনবরন উদযাপন কমিটির সদস্য সচিব মাসুম হাওলাদার।
বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ট্রেজারার প্রফেসর এএমএম শামসুর রহমান,ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদের ডীন প্রফেসর ড.সুব্রত কুমার দে,কলা অনুষদের ডীন প্রফেসর ড.মাহবুব হোসেন,সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডীন প্রফেসর ড.হাবিবুর রহমান,ছাত্র উপদেষ্টা প্রফেসর ড.নজরুল ইসলাম,সঙ্গীত বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর ড.মোশাররফ শবনম,ইংরেজী ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর ড.ইমদাদুল হুদা,ছাইফুল ইসলাম,রেজিস্ট্রার (অতিরিক্ত দায়িত্ব) ফজলুল কাদের চৌধুরী প্রমুখ।
বক্তব্য রাখেন কবি নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি সাব্বির আহমেদ,সাধারন সম্পাদক আপেল মাহমুদ, নবীন শিক্ষার্থীদের মধ্য হতে বাংলা ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের সাদিক আহমেদ এবং ইংরেজি ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের রায়হানা আক্তার বৈশাখী তাদের অনুভূতি ব্যক্ত করেন।