| |

সহযোগীতা পেলে সিটি করপোরেশনের বর্ধিত অংশের নাগরিক সুবিধা নিশ্চিত করা হবে মেয়র টিটু

স্টাফ রিপোর্টার ॥ শম্ভুগঞ্জের রঘুরামপুর টানপাড়ায় আজাদ স্কুলের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগীতার পুরস্কার বিতরণী ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান গতকাল বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত হয়েছে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন ময়মনসিংহ পৌরসভার মেয়র ও আওয়ামীলীগ নেতা মোঃ ইকরামুল হক টিটু। চর নীলক্ষিয়া ইউপি চেয়ারম্যান নুর মোহাম্দ মীরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সিনিয়র সহ সভাপতি ও জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুল হক রিপন, শম্ভুগঞ্জের বিশিষ্ট ব্যবাসায়ী ফারুকুল ইসলাম রতন, শাহজাহান মনির, জেলা যুবলীগের তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক আখেরুল ইমাম সোহাগ, জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সহ সভাপতি ওয়াহিদুজ্জামান মিলন, মুকুল ি কেতন উচ্চ বিদ্যালয়ের ১৯৯০ সালের ব্যাচের পক্ষ থেকে ইফতেখারুল আলম কিংশুক, সাংবাদিক কাজী মোস্তফা (মুন্না)। এ সময় মেয়র টিটু বলেন, ময়মনসিংহের বহুল পরিচিত ও সনামধন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান মুকুল নিকেতন উচ্চ বিদ্যালয়ের ১৯৯০ ব্যাচের শিক্ষার্থী আবুল কালাম আজাদ তাঁর নিজ নামে এ পাড়াগায়ে আজাদ স্কুল প্রতিষ্ঠা করে মানুষ গড়ার কাজে হাত দিয়েছেন। তিনি আশা প্রকাশ করে বলেন, এ প্রতিষ্ঠানটি সুন্দর মানুষ ও আলোকিত মানুষ গড়তে দায়িত্বশীল হয়ে উঠবে। মেয়র টিটু ক্ষুদে শিক্ষার্থী ও ক্রীড়াবিদদের উদ্দেশ্যে বলেন, একজন ভাল এবং আদর্শ মানুষ হতে লেখাপড়ার বিকল্প নেই। খেলাধুলা মানুষের মন ও শরীরকে ভাল রাখে। তাই লেখাপড়ার পাশপাশি খেলাধুলা অপরিহার্য। এর আগে ক্ষুদে শিক্ষার্থীরা মান সম্পন্ন ডিসপ্লে, শারিরিক কুসরত পরিবেশন করে। মনমুগ্ধময় ডিসপ্লে দেখে মেয়র বলেন শহরের অনেক স্কুল যা পারেনি এ পাড়াগায়ের স্কুলের শিক্ষার্থীরা তা পেরেছে। এ জন্য স্কুলের পরিচালক ও মুকুল নিকেতন স্কুলের ৯০ ব্যাচের ছাত্র আবুল কালাম আজাদকে ধন্যবাদ জানিয়ে মেয়র বলেন সাহসী ও শক্তিশালী উদ্দোগের ফলেই এটা সম্ভব হয়েছে। এদিকে রঘুরামপুর এলাকা সহ শম্ভুগঞ্জে বেশ কিছু এলাকা ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশনের আওতাভুক্ত হতে যাওয়ায় তিনি বর্ধিত অংশের উন্নয়নে সকলের সহযোগীতা কামনা করে বলেন, ময়মনসিংহ শহরকে যেমন তিলোত্তমা করা হয়েছে সুযোগ ও সহযোগীতা পেলে আগামীতে বর্ধিত অংশের নাগরিক সুবিধা নিশ্চিত করা হবে। পরে তিনি স্কুলটির উন্নয়নে ব্যাক্তিগত তহবিল থেকে নগদ অর্থ সহযোগীতা করেন। এর আগে ফিতা কেটে ও জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে ক্রীড়া প্রতিযোগীতা উদ্বোধন করেন মেয়র টিটু। পরে মেয়র টিটুকে স্কুলের পক্ষ থেকে ক্রেস্ট প্রদান করা হয়।