| |

আব্দুল আলীম ঢাকা বিভাগের শ্রেষ্ঠ প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার

জামালপুর প্রতিনিধি॥প্রাথমিক শিক্ষা পদক ২০১৫-এর বিভাগীয় পর্যায়ে অনুষ্ঠিত প্রতিযোগিতায় জামালপুর জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ আব্দুল আলীম ঢাকা বিভাগে শ্রেষ্ঠ হয়েছেন।
জানা গেছে, মোঃ আব্দুল আলীম ২০১৩ সালের ৪ জুলাই জামালপুর জেলা শিক্ষা অফিসার পদে যোগদান করেন। তিনি যোগদানের পর থেকেই জেলার প্রাথমিক শিক্ষার চিত্র পাল্টাতে থাকে। বিদ্যালয় থেকে শিক্ষার্থী ঝড়ে পড়া হার হ্রাস পেতে থাকে। বাড়তে থাকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। বর্তমানে জেলার প্রায় প্রতিটি গ্রামেই রয়েছে অন্তত একটি করে প্রাথমিক বিদ্যালয়। বিদ্যালয়গুলোতে শিক্ষার পরিবেশ ফিরতে থাকে। পড়ালেখায় মনোযোগী হতে থাকে শিক্ষার্থীরা। বিগত ৫ বছর আগে জেলায় বিদ্যালয়ে গমনোপযোগি শিশু ভর্তির হার ছিল ৯২ দশমিক ২৪ শতাংশ।  তার অক্লান্ত পরিশ্রমে বর্তমানে শিশু ভর্তির হার দাঁড়িয়েছে ৯৯ দশমিক ৬২ শতাংশ। অথ্যাৎ প্রায় সকল শিশুই এখন বিদ্যালয়ে ভর্তি হচ্ছে। আব্দুল আলীমের প্রচেষ্টায় জেলার ২১টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ডিজিটাল কনটেন্ট তৈরি করে পাঠদান চলছে। ৭৭টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বিতরণ করা হয়েছে ল্যাপটপ। যার মাধ্যমে শিক্ষক ও শিশুরা আইসিটি কার্যক্রমে সম্পৃক্ত রয়েছে। ইউনিসেফের সহায়তায় জামালপুর সদর ও সরিষাবাড়ী উপজেলায় ১২টি শিশু বান্ধব বিদ্যালয় গড়ে তোলা হয়েছে। এসব বিদ্যালয়ে শিশুদের জন্য খেলাধুলার পর্যাপ্ত সুযোগ সৃষ্টি করা হয়েছে। প্রত্যক বিদ্যালয়ে শিশুদের জন্য গড়ে তোলা হয়েছে লাইব্রেরি। দেওয়ানগঞ্জ উপজেলায় ১৬৬টি এবং মাদারগঞ্জ উপজেলায় ২শ ২টি স্কুলে স্কুল ফিডিং কার্যক্রমের আওতায় শিক্ষার্থীরা প্রতিদিন ৭৫ গ্রাম হারে পুষ্টিমান সম্পন্ন বিস্কুট পাচ্ছে। এই কার্যক্রমের ফলে শিশুদের পুষ্টির চাহিদা পূরণের পাশাপাশি লেখাপড়ায় মনোযোগী হচ্ছে। বন্ধ হওয়া ১৬টি প্রাথমিক বিদ্যালয় তিনি যোগদানের পর জেলা প্রশাসনের কাছে ত্রাণের টিন নিয়ে সেডঘর নির্মাণ করে পুনরায় বিদ্যালয়গুলোতে শিক্ষা কার্যক্রম চালু করেছেন। শিক্ষা ক্ষেত্রে ব্যাপক সাফল্য অর্জন করায় তিনি এবছর ঢাকা বিভাগের শ্রেষ্ঠ জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা নির্বাচিত হয়েছেন।